মেইন ম্যেনু

৫ হাজার টাকায় স্যামসাংয়ের নতুন 4G ফোন

ভারতের স্মার্টফোন বাজারের একটি বড় অংশ এখন স্যামসাংয়ের দখলে এবং তার প্রধান কারণ ৫ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা রেঞ্জের বিপুল প্রোডাক্ট রেঞ্জ। দেখে নেওয়া যাক এই নতুন ফোনে কী কী রয়েছে।

এই মুহূর্তে ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড স্যামসাং। ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস গ্যালাক্সি এস সিরিজের দাম আকাশছোঁয়া হলেও স্যামসাং কিন্তু বরাবরই তাদের রেঞ্জটি রেখেছে বড় যাতে সব রকম বাজেটের ক্রেতাদের হাতেই ফোন তুলে দেওয়া যায়। সেই লক্ষ্যেই আবারও কোম্পানি লঞ্চ করল একটি সস্তা ফোন।
নতুন এই ফোনের দাম ৪৫৯০ টাকা। এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক এত কম দামে কী কী স্পেকস দিচ্ছে কোম্পানি—
১. ৪ ইঞ্চি স্ক্রিন
২. ৪৮০x৮০০ পিক্সেল রেজলিউশন
৩. ১.৫ গিগাহার্টজ কোয়াড-কোর প্রসেসর
৪. ১ জিবি র‌্যাম
৫. ৫ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, এলইডি ফ্ল্যাশ-সহ
৬. ০.৩ মেগাপিক্সেল ভিজিএ ফ্রন্ট ক্যামেরা
৭. ৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ
৮. ১২৮ জিবি এক্সপ্যান্ডেবল স্টোরেজ
৯. টিজেন অপারেটিং সিস্টেম
১০. ডুয়াল সিম ফোরজি সাপোর্ট
১১. ওয়াই-ফাই, জিপিএস, ব্লুটুথ
১২. ১৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি
কমদামী এই ফোনের ব্যাটারি খুবই খারাপ তবে ফোরজি কানেকশন নেওয়া যাবে, সেটা একটা বড় সুবিধা। খুব বেশি গেম খেললে ফোন হ্যাং হতে পারে। তবে হোয়াটসঅ্যাপ আর সাধারণ ইন্টারনেট সার্চে সমস্যা হবে না যদি ফোরজি কানেকশন থাকে। ফেসবুক লাইট অ্যাপ ইনস্টল করে নিলে ফেসবুকও করা যাবে নিশ্চিন্তে। তাছাড়া পাঁচ-হাজারি ফোনে ফ্ল্যাশ-সহ রিয়ার ক্যামেরা অবশ্যই একটি উল্লেখযোগ্য স্পেক। যাঁরা সদ্য ফিচার ফোন থেকে স্মার্টফোনে উন্নীত হচ্ছেন তাঁদের জন্য এই ফোন ভাল। স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের জন্যেও বাজেট ফোন হিসেবে ঠিকঠাক তবে বেশি গেম খেললে সমস্যা হতেই পারে।