মেইন ম্যেনু

৬৮ ফিট পতাকা নিয়ে পাটগ্রামে বিজয় র‌্যালী

৬৮ বছরের বন্দিদশা থেকে মুক্তির আনন্দে দীর্ঘ ৬৮ফিট লম্বা লাল সবুজের পতাকা নিয়ে র‌্যালী করেছে সদ্য মুক্তি পাওয়া ছিটমহলবাসী।
শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে লালমনিরহাটের পাটগ্রামের ৫৫টি ছিটমহলের হাজার হাজার মানুষ বিজয় র‌্যালী নিয়ে উপজেলা চত্ত্বরে উপস্থিত হয়।
সদ্য মুক্তি পাওয়া ছিটমহলবাসীরা হাতে ফেষ্টুন, প্লের্ক্ড, ব্যানার নিয়ে সর্বস্থরের নারী-পুরুষ স্বাধীনতা দিবসের র‌্যালীতে অংশ নেন।

lalmonirhat-Enclave- rally-p-1নতুন নাগরিকত্ব পাওয়া এই বাংলাদেশিদের সোভাযাত্রা আনন্দ মিছিলে রূপ নেয়। ঢাক ঢোল পিটিয়ে নেচে গেয়ে সোভাযাত্রায় অংশ নেয় হাজারও নারী পুরুষ। তাদের কন্ঠে প্রতিধ্বন্বিত হয় “আমার সোনার বাংলা/আমি তোমায় ভালবাসি।

৩১ জুলাই রাত ১২টায় ১ মিনিটে আপনা অপনি বাংলাদেশ ভারতের ১৬২টি ছিটমহলের মানুষ স্ব স্ব দেশের নাগরিকত্ব লাভ করে। সেই সাথে ভুখন্ডও স্ব স্ব দেশের মুল ভুখন্ডের সাথে মিলে যায়। ফলে এ দুই দেশের মানচিত্র থেকে মুছে যায় ছিটমহল শব্দটি।

lalmonirhat-Enclave- rally-p-5দীর্ঘ দিনের বন্দির পর মুক্তির আনন্দ যেন থামছে না ছিটমহলগুলোতে। ৬৮ বছরের গ্লানীকে মুছে ফেলতে এবং এ দিনটিকে চির স্মরনীয় রাখতে ৬৮ ফিট লম্বা লাল সবুজের জাতীয় পতাকা নিয়ে প্রথম বিজয় র‌্যালী করল সদ্য স্বাধীনতা পাওয়া পাটগ্রামের ৫৫ ছিটমহলের মানুষ।

স্মরনীয় এ র‌্যালীটি পাটগ্রাম উপজেলা চত্বরে পৌছলে পাটগ্রাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুল, পাটগ্রাম ইউএনও নূর কুতুবুল আলম, পাটগ্রাম পৌর মেয়র সমশের আলী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শফি কামাল টারজান, পৌর আওয়ামীলীগের সম্পাদক কাজী আসাদুজ্জামান আসাদ, আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ শাহ নূরন্নবী আল কামাল আজাদ, পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা রেজাউল করিম সদ্য স্বাধীনতা অর্জকারীদের অর্ভ্যথনা জানান।