মেইন ম্যেনু

৭১ টি মৃতদেহ নিয়ে ৭৩ বছর ধরে সমুদ্রে রহস্যময় ডুবোজাহাজ !

রোম, ২৭ মে- ৭১ টি মৃতদেহ নিয়ে ৭৩ বছর ধরে সমুদ্রের গভীরে ঘুমিয়ে ছিল সে। ঘুম ভাঙল ডাইভারদের আনাগোনায়। ‘সে‘ হল একটি ব্রিটিশ ডুবোজাহাজ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় থেকে তার ঠিকানা ছিল সাগরের গহিনে। ইতালির সারদিনিয়া উপকূলে তাভালারা দ্বীপের কাছে সমুদ্রের ১০০ মিটার গভীরে পাওয়া গেল ডুবোজাহাজটিকে।

১৯৪২ সালের ২৮ ডিসেম্বর মাল্টা বন্দর ছেড়ে রওনা দেয় ডুবোজাহাজটি। প্রথম লক্ষ্য ছিল দুটি ইতালীয় যুদ্ধজাহাজ ধ্বংস করা। সেটি নোঙর ফেলে মাদালেনা বন্দরের কাছে। ৩১ ডিসেম্বর সিগন্যালও পাঠায় । কিন্তু ১৯৪৩-এর ২ জানুয়ারি থেকে ডুবোজাহাজটির কোনও খোঁজ পাওয়া যায় না। ১২৯০ টন ওজনের জলযানটি যেন হাওয়ায় মিলিয়ে যায়।

৭৩ বছর পরে আবার তার খোঁজ পাওয়া গেল। জানা গেছে‚ জাহাজটির ক্ষতি নগণ্য। বিস্ফোরণে সামান্য ক্ষতি হয়েছে। মনে করা হচ্ছে‚ অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হয় এর ৭১ জন ক্রু-য়ের। তাঁদের শনাক্ত করে পরিবার পরিজনকে জানানোর চেষ্টা চলছে।