মেইন ম্যেনু

৭ গার্লফ্রেন্ডকে সন্তুষ্ট রাখতে চুরি!

সাত গার্লফ্রেন্ডকে ‘খুশি রাখতে’ চুরি করতেন বলে দাবি করেছেন ভারতের মহারাষ্ট্রে আটককৃত এক ব্যক্তি। ২৬ বছর বয়সী ওই যুবকের বিরুদ্ধে চুরি ও সিঁধ কেটে চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া। ওমপ্রকাশ রংনাথ খাদাভ নামে ওই ব্যক্তিকে ৯টি চুরির ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে আটক করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, এ যুবক মদ্যাসক্ত এবং সে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতো। সবসময়ই সে অত্যন্ত ধনী ব্যক্তির মতো বসবাস করার স্বপ্ন দেখত। এমনকি ট্রেনে সবসময়ই এসি কোচেই চড়তো ওমপ্রকাশ। তার কাছ থেকে মোট ১৭টি মোবাইল ফোন ও সাড়ে চার লাখ রুপি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ছত্রিশঘর, মধ্যপ্রদেশ, ওয়ার্ধা, ভুসওয়াল ও মহারাষ্ট্রের পুনেতে ওমপ্রকাশের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ রয়েছে। এ ঘটনা তদন্তে এসিপি সোমনাথ ওয়াঘচৌরের নেতৃত্বে একটি দল গঠন করে মহারাষ্ট্র পুলিশ। সোমনাথ রীতিমত ফাঁদ পেতে ওমপ্রকাশকে আটক করেন। ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতে রাখা হবে তাকে। ওয়ার্ধার এক স্বর্ণকারকেও পুলিশ আটক করেছে। তার কাছেই চুরিকৃত অলঙ্কার বিক্রি করতো ওমপ্রকাশ।

ধরা পড়ার পর ওমপ্রকাশ তার চুরির পেছনের কারণ জানায়। সে জানায়, তার রয়েছে সাত সাতটি গার্লফ্রেন্ড। আর তাদের সন্তুষ্ট রাখতে গিয়েই চুরির আশ্রয় নিতে হয় তাকে। ওমপ্রকাশ যে সাত জন গার্লফ্রেন্ড থাকার দাবি করেছে, তাদের একজন কলেজের শিক্ষার্থী।

ফেসবুকের মাধ্যমে তার সঙ্গে ওমপ্রকাশের পরিচয়। মেয়েটিকে মূল্যবান সামগ্রী উপহার হিসেবেও দিয়েছে সে। পুলিশ এই মেয়েটিকেও জিজ্ঞাসাবাদ করছে।