মেইন ম্যেনু

৭ নভেম্বরের আগেই ফিরছেন খালেদা

আগামী ৭ নভেম্বরের আগেই দেশে ফিরবেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় শুনানিকালে তার এক আইনজীবী এ কথা জানান।

প্রায় দেড় মাস হলো লন্ডনে ছেলে তারেক রহমানের সঙ্গে আছেন তিনি। সেখানে চিকিৎসার স্বার্থেই গেছেন তিনি।

বকশিবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে শুনানিকালে বিচারক খালেদার দেশে ফেরার বিষয়ে জানতে চান। তখন তার এক আইনজীবী বলেন, বেগম খালেদা জিয়া ৭ নভেম্বরের আগেই দেশে ফিরবেন। যদি তিনি শারীরিকভাবে সুস্থ থাকেন।

এ বিষয়টি একটি ইংরেজি দৈনিকের কাছে নিশ্চিত করেছেন তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া। তবে পরে  এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, ‘ওই পত্রিকাকে নিশ্চিত করে কোনো তারিখের কথা আমি বলিনি।’

তবে আরেক আইনজীবী ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেছেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া ৭ নভেম্বরের আগেই দেশে ফিরবেন ইনশাল্লাহ।’

অবশ্য গত ২৪ অক্টোবর ৭ই নভেম্বরের কর্মসূচি ঘোষণার অনুষ্ঠানে একই কথা বলেছিলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এদিকে বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আরও ৪ জন সাক্ষীর জেরা সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া ১ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করে আগামী ৫ নভেম্বর পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেছেন বিচারক।

অন্যদিকে জিয়া অরফানেজ মামলার হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে লিভ টু আপিল বিচারাধীন থাকায় সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাতে সময়ের আবেদন করেন। আদালত খালেদার অনুপস্থিতির আবেদন মঞ্জুর করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষীর জেরা শুরুর আদেশ দেন। বাংলামেইল



« (পূর্বের সংবাদ)