মেইন ম্যেনু

৮ বছর পর ক্ষমা চেয়ে অবশেষে জুতার মালিকের কাছে চোরের চিঠি!

৮ বছর পর ক্ষমা চেয়ে অবশেষে জুতার মালিকের কাছে চিঠি দিয়েছেন এক চোর। ওই চিঠিতে তিনি জুতার দামও ফেরত দিয়েছেন! চুরি করার ঘটনায় তিনি অনুতপ্ত হয়ে জুতার মালিকের কাছে চিঠি পাঠান।

সংবাদ মাধ্যমে জানা গেছে, ৮ বছর আগে জুতা চুরি করেছিলেন এক চোর। ৮ বছর পর তিনি অনুতপ্ত হয়ে জুতার মালিকের কাছে চিঠি পাঠান। চিঠিতে চোর ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি জুতার দাম বাবদ ৫০০ সৌদি রিয়ালও ফেরত দিয়েছেন! এ খবর দিয়েছে গাল্ফ নিউজ।

গাল্ফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের পত্রিকা সাবাক বৃহস্পতিবার জানায়, সৌদির নাগরিক আবু আব্দুল রহমান রাতে তার এক আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে গেলে সেখানে তার জুতা জোড়া চুরি হয়ে যায়। জানা গেছে, স্থানীয় রীতি অনুযায়ী অনুষ্ঠানকালীন মজলিসেই খাবার পরিবেশন করা হয়। এসময় অতিথি এবং গৃহকর্তাসহ সবাইকে তাদের জুতা দরজার বাইরেই রাখতে হয়।

আব্দুল রহমান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, গত বুধবার এক যুবক আমার অফিসে এসে একটি খাম দিয়ে যায়। সেটা খুলে সেখানে আমি একটি কম্পিউটারে টাইপ করা নোট দেখতে পাই।’ নোটে চোরটি লিখেছে, ‘সে আমার জুতা জোড়া চুরির ঘটনায় বেশ অনুতপ্ত। পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে তিনি আমার কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন।’

তিনি জানান, চোরটি জুতার দাম বাবদ ৫০০ রিয়ালও দিয়েছে। প্রকৃতপক্ষে ওই জুতা জোড়ার দাম এর অর্ধেক। জুতা জোড়াটি কেনার পর ওই দিনই তিনি প্রথম ব্যবহার করেছিলেন। জুতার মালিক আব্দুল রহমান বলেন, তিনি চোরকে কয়েক বছর আগেই ক্ষমা করে দিয়েছেন। এখন তিনি চোরের দেয়া অর্থগুলো একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানে দান করেছেন।

উল্লেখ্য, ওই চোরও তার চিঠিতে উল্লেখ করেছে, জুতা জোড়া সে এক অভাবী ব্যক্তিকে দান করে দিয়েছেন।