মেইন ম্যেনু

৯টি উপায়ে দ্রুত জমিয়ে ফেলুন অনেকগুলো টাকা

অনেক কারণেই একসাথে অনেকগুলো টাকার প্রয়োজন হতে পারে। কেউ কেউ ইমার্জেন্সির জন্য টাকা জমিয়ে রাখলেও বেশীরভাগ মানুষই তা করেন না। দরকারের সময় দেখা যায় টানাটানি এবং ধার নিতে ছুটতে হয় এদিক ওদিক। আপনি যদি জানেন যে কিছুদিন পরেই আপনার একটা বড় অংকের টাকা দরকার হবে, তাহলে এখন থেকেই জমানো শুরু করতে পারেন টাকা। এই কাজটি করতে আপনাকে সাহায্য করতে পারে Popsugar এর দারুণ এই টিপসগুলো-

১) আনসাবস্ক্রাইব

আপনি হয়তো আনলিমিটেড ইন্টারনেটের সার্ভিস চালু করে রেখেছেন, অথচ তা ব্যবহার করছেন না। অথবা টিভিতে স্যাটেলাইটের লাইন নেওয়া আছে কিন্তু সারাদিন টিভি বন্ধই থাকে। হয়তো এমন একটা ম্যাগাজিন প্রতি মাসে রাখছেন যা মোটেই কেউ পড়ে না। এই ধরণের খরচগুলো বাদ দিয়ে দিন এখনই।

২) বাইরে খেতে যাবেন না

খুব সহজেই খরচ কমানোর একটা বড় উপায় হলো বাইরে খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দেওয়া। যে কোনো রেটুরেন্টে খেতে গেলেই আপনার এত্তোগুলো টাকা খরচ হয়ে যাবে। এর চাইতে বাজার করে ঘরেই রান্না করুন আর টাকা জমান। খুব বেশি দরকার না হলে বাইরে খাবেন না।

৩) একটা সেভিংস একাউন্ট খুলুন

বিশেষ দরকারটার জন্যই একটা সেভিংস একাউন্ট খুলে ফেলুন ব্যাংকে। এটা টাকা জমানোর খুব সহজ একটা উপায়। প্রতি মাসের বেতনের কিছুটা অংশ ওই একাউন্টে জমা করতে থাকুন। তাহলে অনেকটা টাকা জমে যাবে। এছাড়াও Womans Day এর পরামর্শ হলো, এই একাউন্ট থেকে যাতে টাকা তুলতে না পারেন, এর জন্য কোনো ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ড রাখবেন না। তাহলে নিজের অজান্তেই খরচ করতে শুরু করবেন, আর জমানো হবে না।

৪) কিপটে বন্ধুদের সাথে সময় কাটান

ঠিক কিপটে না হলেও অন্তত মিতব্যয়ী বন্ধুদের আশেপাশে থাকার চেষ্টা করুন এ সময়ে। তারা নিজেরা যেমন টাকা বাঁচিয়ে চলে তেমনি অন্যদের যেন টাকা খরচ করতে না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখে। আপনারা মিলে করতে পারেন এমন কিছু কাজ যাতে কোনো খরচই হয় না।

৫) বাড়িতে সময় কাটান

অনেক সময়ে দেখা যায় বাইরে একটু হাঁটাহাঁটি করতে গেলেই এটাসেটা কেনা হয়ে যায়, টাকা খরচ হয়ে যায়। এ কারণে টাকা জমাতে চাইলে বাসাতেই সময় কাটান। এমনকি বাসায় বসেই করতে পারেন এমন কিছু কাজ যাতে উল্টো টাকা আয় হয়।

৬) বাজেট করুন

আপনার ঠিক কতো টাকা জমাতে হবে তা ঠিক করুন। এরপর সেই টাকা জমানোর উদ্দেশ্যে প্রতি দিন অথবা প্রতি সপ্তাহে কিছু পরিমাণ টাকা আপনার সেভিংস একাউন্টে রাখুন। এছাড়াও প্রতি সপ্তাহে কী কী খরচ আছে তা প্ল্যান করে নিন এবং সে অনুযায়ী মেপে মেপে খরচ করুন। টাকা জমাতে গেলে একটু টাইট বাজেটে থাকাই ভালো। এতে দেখবেন আরও কিছু টাকা বের হয়ে গেছে।

৭) অদরকারী জিনিসপত্র বিক্রি করে দিন

নিজেদের অজান্তেই আমরা অনেক কিছু ঘরে জমিয়ে রাখি যা আসলে আমাদের দরকারই নেই। এসব জিনিস কেবল ঘরে জঞ্জাল বাড়াচ্ছে। এমনকি অনেকেই পোশাক দিয়ে আলমারি ভরে রাখেন অথচ এগুলো পরেন না। এ কারণে দরকারি জিনিস ছাড়া বাকিগুলো বিক্রি করে দিন। আপনার জন্য অপ্রয়োজনীয় এসব জিনিস হয়তো অন্য কারও বিরাট উপকার করতে পারে।

৮) একটু বেশি আয় করুন

বেশি টাকা জমাতে ওভারটাইম কাজ করতে পারেন। যদি সেই সুবিধা না থাকে তাহলে চাকরির পাশাপাশি পার্ট টাইম আরেকটা কাজ করতে পারেন। খুব কম সময়ের বা কম আয়ের কোনো কাজ হলেও এটা এক সময়ে বেশ কিছুটা টাকা জমিয়ে ফেলবে।

৯) ব্র্যান্ডের জিনিস কেনা বন্ধ করে দিন

খাবার হোক আর পোশাক আশাক হোক, আমরা ব্র্যান্ড বলতে অজ্ঞান। কিন্তু ব্র্যান্ডের জিনিস কিনতে গেলে খরচটা বেশি হয়। এ ক্ষেত্রে Cosmopolitan এর পরামর্শ হলো, টাকা জমানোর উদ্দেশ্য থাকলে কিছুদিনের জন্য নামীদামী ব্র্যান্ডের জিনিস বাদ দিয়ে সাধারণ ব্র্যান্ডের জিনিস কিনুন।

লেখককে এন দেয়া