মেইন ম্যেনু

অন্যরকম দোকানগুলো

little

দোকান আমাদের দৈনন্দিন জীবনের বেশ পরিচিত একটা বিষয়। যেকোন কিছুর চট করে দরকার পড়ে গেল, সাথে সাথে আমরা ছুটে যাই বাড়ির পাশের দোকানটায়। কী পাওয়া যায়না দোকানে? আমাদের পরিচিত-অপরিচিত, প্রয়োজনীয়-অপ্রয়োজনীয়- সব ধরণের জিনিস পাই আমরা দোকানে। কিন্তু এবার যে দোকানগুলোর কথা বলব আপনাকে সেগুলো কিন্তু মোটেই আর দশটা সাধারণ দোকানের মতন নয়। কেমন সেই দোকানগুলো? চলুন দেখে আসি সেই অদ্ভূত আর অন্যরকম দোকানগুলোকে।

১. বিনে পয়সার দোকান

এমন একটি স্থানের কথা ভাবুন তো যেখানে গেলে প্রয়োজনীয় সবকিছু হাতের নাগালে পাওয়া যায়? ভাবছেন সুপার মার্কেটের কথা বলছি? একদম না! কারণ সুপার মার্কেটের মতন এই স্থানটিতে গেলে জিনিসপত্র পাওয়ার জন্যে কাঁড়িকাঁড়ি টাকা খরচ করতে হবেনা আপনাকে। বরং সেগুলোকে বিনা খরচাতেই পাবেন আপনি। কেবল একটু খুঁজে নিতে হবে এই যা। তবে কেবল নিতেই নয়, আপনার বাতিল জিনিস বা ইচ্ছেমতন অভাবীদের জন্যে যেকোন খাবার বা জিনিসপত্র রেখে আসতে পারেন আপনি এখানে। মোটকথা, একইসাথে দেওয়া এবং নেওয়া- দুটোর কাজই সেরে ফেলা যায় এখান থেকে।

বলছিলাম ফায়েটেভিলের গুড শেফার্ড লুথারিয়ান চার্চের ঠিক পাশেই অবস্থিত জেসিকা ম্যাকলার্ডের হাতে গড়ে ওঠা ছোট্ট পেনট্রির কথা। বেশ কিছুদিন আগের কথা। সেসময় জেসিকার চোখে পড়ে ফায়েটেভিলের নতুন কিছু গ্রন্থাগার। যেগুলো থেকে মানুষেরা তাদের ইচ্ছেমতন বিনামূল্যে বই নিয়ে যেতে পারতো। বেশ সাফল্য লাভ করে বিষয়টি জেসিকাদের ওখানে। সেই থেকে জেসিকার মাথায় ঘুরতে থাকে অন্যরকম একটি চিন্তা। বই নয়। বইয়ের বদলে খাবার আর নানারকম জিনিসপত্র বিনামূল্যে দেওয়ার কথা চিন্তা করেন তিনি।

২. ভাসমান দোকান

এবার যে দোকানের কথা বলব সেটা আগেরটার মতন বিনা পয়সার নয়। তবে দোকানের আর সবকিছু সাধারণ যেকোন দোকানের সাথে মিলে গেলেও সমস্যাটা একটি জায়গায়। আর সেটি হচ্ছে এই যে, আর সব দোকানের মতন এই দোকানটি মাটির ওপরে নয়, পানির ওপরে অবস্থিত! তাহলে? ভাবছেন কী করে যাবেন এই দোকানে? কীভাবে আবার! আর সবাই যেভাবে যায় সেভাবে। নৌকা করে। অন্যরকম এই দোকানটির অবস্থান ইন্দোনেশিয়ার মুরা কুইনে।

৩. ফ্রেইটেগস কনটেইন্টার শপ

নাম শুনেই নিশ্চয়ই বুঝে গিয়েছেন যে কন্টেইনারের সাথে একটু হলেও মিল আছে এই দোকানের। আসলেও তাই। জার্মানির ফ্রেইটেগস কনটেইনার শপ তৈরি হয়েছে অনেকগুলো খালি কনটেইনার দিয়ে। বিশাল মালবাহী কনটেইনারগুলোকে একের ওপর এক সাজিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে দোকানটি। এখানে গেলে বাতিল জিনিস দিয়ে তৈরি নানারকম পণ্য খুঁজে পাবেন আপনি। সবচাইতে বেশি পাবেন ব্যাগ। ব্যাগের জন্যে বেশ বিখ্যাত স্থানটি।