মেইন ম্যেনু

বন্ধ করে দেওয়া হলো সিটিসেলের কার্যক্রম

city

আদালতের আদেশ অমান্য করায় মোবাইলফোন অপারেটর সিটিসেলের কার্যক্রম (স্পেক্ট্রাম বা তরঙ্গ) স্থগিত করে দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিটিআরসিতে জরুরি সংবাদ সম্মেলন ডেকে এই সিদ্ধান্তের কথা জানান ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

প্রসঙ্গত, মোবাইলফোন অপারেটর সিটিসেলের কাছে সরকারের পাওনা রয়েছে ৪৭৭ কোটি ৫১ লাখ টাকা। ১৬ আগস্টের মধ্যে এই টাকা পরিশোধ না করলে বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে অপারেটরটি। রাজস্ব বকেয়া বাকি এবং পরিশোধে গড়িমসি করায় যেকোনও সময় বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের লাইসেন্স ও তরঙ্গ বাতিল এবং অপারেশনাল কার্যক্রম বন্ধ করে অপারেটরটির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে পারে সরকার। ৩১ জুলাই সিটিসেলের গ্রাহকদের উদ্দেশে এক বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানিয়ে বিটিআরসি দুই সপ্তাহের মধ্যে বিকল্প সেবা নেওয়ার জন্য গ্রাহকদের আহ্বান জানায়।

বিটিআরসি ওই নোটিশ দিলে সিটিসেল আপিল বিভাগে যায়। আপিল বিভাগ গত ২৯ আগস্ট সিটিসেলের বকেয়া টাকা পরিশোধ করার শর্তে অপারেশন চালিয়ে যেতে বলে। এজন্য সিটিসেল পেয়েছিল দুই মাস সময়। টাকা দুই কিস্তিতে পরিশোধের কথা বলা হয়।

বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে তারানা হালিম জানান, ‘আজ ছিল সিটিসেলের টাকার পরিশোধ করার দিন। কিন্তু সেই টাকা পরিশোধে তারা ব্যর্থ হয়েছে। এজন্য সিটিসেল বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’

জানা গেছে, সম্প্রতি সিটিসেল তাদের বকেয়া টাকার মধ্যে ১৩০ কোটি টাকা পরিশোধ করেছে।