মেইন ম্যেনু

অস্ত্রধারী সেই দুই ছাত্রলীগ নেতা আজও ধরাছোঁয়ার বাইরে

1477929041

গুলিস্তানে ফুটপাত দখলমুক্ত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের সময় অস্ত্র উঁচিয়ে হকারদের ধাওয়া করা দুই ছাত্রলীগ নেতাকে (বর্তমানে বহিষ্কৃত) দুই সপ্তাহেও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। উদ্ধার হয়নি সেই অস্ত্রগুলো।

এদিকে জানা যাচ্ছে, ওই দুই নেতার একজন ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (বহিষ্কার) মো. সাব্বির হোসেন দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। পুলিশ বলছে, তিনি অবৈধভাবে দেশ ছেড়েছেন বলে তারা ধারণা করছে।

আর অন্য অস্ত্রধারী ওয়ারী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (বহিষ্কার) আশিকুর রহমানের ব্যাপারে কোনো তথ্য নেই পুলিশের কাছে।
তবে পুলিশ বলছে, অস্ত্রধারী সেই দুই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করতে তারা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

গত ২৯ অক্টোবর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ ও মামুন সরদার গুলিস্তান এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় পাতাল মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন ওরফে আনু হাজি তাদের বাধা দেন। এ সময় তাকে আটক করে সিটি করপোরেশনে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে হকার ও ব্যবসায়ীদের একটি দল নগর ভবনে গিয়ে মেয়র সাঈদ খোকনের সঙ্গে দেখা করেন। মেয়রের কক্ষেই তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এর কিছু সময় পর ছাত্রলীগ ও নগর ভবনের কিছু কর্মচারী হকারদের ধাওয়া দিয়ে গুলিস্তানে নিয়ে যান। হকাররাও পাল্টা ধাওয়া দেন।

দুই পক্ষের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার সময় ছাত্রলীগ ঢাকা দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন এবং ওয়ারী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান অস্ত্র উঁচিয়ে হকার ও ব্যবসায়ীদের ধাওয়া করেন। এ সময় তারা কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়েন বলে ব্যবসায়ীদের দাবি।

পরদিন পত্রপত্রিকায় অস্ত্র হাতে ছাত্রলীগ নেতাদের ছবি ছাপা হওয়ার পর বিব্রত পরিস্থিতিতে পড়ে ক্ষমতাসীন দল। এ অবস্থায় হাইকমান্ডের নির্দেশনায় সংগঠন থেকে তাদের বহিষ্কার করা হয়।

এরপর গত ১ অক্টোবর রাতে শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক আবদুল মান্নান বহিষ্কৃত ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাব্বির হোসেন এবং ওয়ারী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আশিকুর রহমানের বিরুদ্ধে ‘হত্যাচেষ্টার’ অভিযোগ এনে মামলা করেন।

মামলার আসামিদের গ্রেপ্তার ও তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাইলে শাহবাগ থানার আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, ওই দুই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তাদের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্য শাখার অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী বলেন, সাব্বির হোসেন দেশ ছেড়ে পালিয়েছে এমন খবর শোনা যাচ্ছে। তবে বৈধভাবে নয়, অবৈধভাবে দেশ ছাড়তে পারেন তিনি।