মেইন ম্যেনু

আওয়ামী লীগ মারাত্মক ভুল করেছে : মওদুদ

কোনো ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করেই নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন নিয়ে খালেদা জিয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে মারাত্মক ভুল করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। সোমবার সন্ধ্যায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রদল আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের উচিত ছিল প্রস্তাবটি গ্রহণ করে আলোচনা করা। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তারা (আওয়ামী লীগ) পরাজিত হবে- এই ভয়েই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। এটাই হলো আওয়ামী লীগ। তারা গণতন্ত্র চায় না, নির্বাচনও চায় না।

মওদুদ বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে। একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা সম্ভব। আমরা সেই লক্ষ্যে আন্দোলন করছি। ইনশাআল্লাহ এ দেশে একদিন গণতন্ত্র ফিরে আসবে।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, তিনি (জিয়া) ছিলেন মিতব্যয়ী, সৎ ও সফল রাষ্ট্রনায়ক। তারেক রহমানের মধ্যেও তার বাবার গুণাবলী আছে। তারেক রহমান নম্রভাবে কথা বলেন, বিনয়ী। জিয়াউর রহমানের আদর্শ তারেক রহমানসহ সবাই ধারণ করলে বিএনপিকে একটি আদর্শ সংগঠন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব।

তারেক রহমানের নেতৃত্বের প্রশংসা করে তিনি বলেন, অনেকে হাওয়া ভবনের বদনাম করে থাকেন। কিন্তু এর অনেক ভালো গুণও ছিল। সেখানে তারেক রহমানের একটি টিম ছিল, যারা সারাদেশের বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের তালিকা তৈরি করে রাখতো। আমরা বিভিন্ন সময় নির্বাচনে প্রার্থী হতে গিয়ে তার প্রমাণ পেয়েছি।

মওদুদ বলেন, আগামী নির্বাচনের আগে সুষ্ঠু নির্বাচন কমিশন গঠন না হলে গণতন্ত্র ফিরে আসবে না। আমরা গণতন্ত্র হারিয়েছি। ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের নেতৃত্বে আবার গণতন্ত্র ফিরে আসবে।

ছাত্রদল সভাপতি রাজিব আহসানের সভাপতিত্বে শামসুজ্জামান দুদু, আমানউল্লাহ আমান, রুহুল কবির রিজভী, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, এবিএম মোশাররফ হোসেন, আজিজুল বারী হেলাল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।