মেইন ম্যেনু

আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস

daybetis-thereport24

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস আজ। ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ- যার কারণে দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের কার্যক্ষমতা হ্রাস পেয়ে হার্ট অ্যাটাক, কিডনি ফেইলিউর, অন্ধ হয়ে যাওয়া, পায়ে পচন, এমনকি পা কেটে ফেলার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘ডায়াবেটিকসের উপর দৃষ্টি দিন: অন্ধত্ব এড়াতে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখুন’।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এত বড় বৈশ্বিক এই স্বাস্থ্য সমস্যাকে নিয়ন্ত্রণ বা প্রতিরোধে দরকার জনসচেতনতা এবং জনসম্পৃক্ততা। সময় মতো ইন্টারভেশন (খাদ্যাভ্যাস, জীবনযাত্রার পরিবর্তন), নিয়মিত হাঁটার দ্বারা প্রায় ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ডায়াবেটিস প্রতিরোধ সম্ভব।

প্রাপ্ত এক তথ্যে জানা যায়, বর্তমান বিশ্বে ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ৪০ কোটি এবং ২০৩০ সালে এ সংখ্যা ৫০ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। আশির দশকে দেশে ডায়াবেটিসের প্রবণতা ছিল মাত্র দুই শতাংশের মতো। সেখানে আজ তা ঢাকা শহরেই প্রায় ১০ শতাংশ ছুঁয়েছে এবং প্রি-ডায়াবেটিসের (ডায়াবেটিস এর আগের ধাপ) হার আরো প্রায় ১০ শতাংশ।

সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, গ্রামাঞ্চলেও এর সামগ্রিক প্রবণতা প্রায় ৫ থেকে ৮ শতাংশ। এভাবে বাড়তে থাকলে শুধু ডায়াবেটিসের কারণেই দেশের অর্থনৈতিক ভারসাম্য মারাত্মক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হবে। শুধু দেশেই এখন ডায়াবেটিস আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৯০ লাখ। সেই সাথে প্রতি বছর এক লাখ নতুন রোগী যুক্ত হচ্ছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে দিবসটি পালিত হবে। বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপ্রতি মো. আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস’ উপলক্ষে প্রদত্ত বাণীতে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘বিশ্বজুড়েই ডায়াবেটিস এক নীরব মহামারী। আমি জানতে পেরেছি বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও এ রোগটি দ্রুত হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ডায়াবেটিস বৃদ্ধির হার রোধ করা না গেলে এ রোগের প্রাদুর্ভাব আমাদের মতো উন্নয়নশীল একটি দেশের টেকসই উন্নয়নের পথে বড় অন্তরায় হয়ে উঠতে পারে।’

তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞদের মতে, নগরায়ণের কারণে মানুষের জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাসের ব্যাপক পরিবর্তন এবং কায়িক পরিশ্রমের অভাবেই ডায়াবেটিসের প্রকোপ দিন দিন বাড়ছে। এ অবস্থায় ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে আরও উদ্যোগ গ্রহণ গুরুত্বপূর্ণ।

দিবসটি উপলক্ষে প্রদত্ত বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সরকারের পাশাপাশি বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন আমি বিশ্বাস করি, দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি যে সব কর্মসূচি গ্রহণ করেছে তা ডায়াবেটিস এবং এর জটিলতা সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।’

দিবসটি উপলক্ষে আজ সোমবার বারডেম হাসপাতালের অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন।