মেইন ম্যেনু

আপনার প্রিয় খাবারগুলো গ্রহণের সঠিক মাত্রা জেনে নিন

স্মুদি স্বাস্থ্যকর এটা সবাই জানেন। কিন্তু এর অর্থ এই নয় যে, আপনি গ্লাসের পর গ্লাস পান করেই যাবেন। কারণ আপনার ক্যালোরি গ্রহণের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। আপনার প্রিয় খাবারগুলো খাওয়ার সঠিক পরিমাণ জানা থাকা প্রয়োজন আপনার, জেনে নিন এই ফিচারে।

১। পাস্তা

জটিল শর্করার উৎস পাস্তা। এছাড়াও এতে ফাইবার, প্রোটিন ও ভিটামিন ও থাকে। ১ প্লেট পাস্তাতে ৩০০ ক্যালোরি থাকে। ১ কাপ রান্না করা স্প্যাগেটিতে ২০০ ক্যালোরি থাকে।

২। দই

দই প্রোটিনের চমৎকার উৎস। কিন্তু তাই বলে আপনার যত খুশি তত খাবেন এমনটা ভাবাও ঠিক নয়। বাজারের বেশীর ভাগ দইয়ের মধ্যেই চিনি যোগ করা থাকে। ১ কাপ দই খেলে আপনার ক্যালোরি গ্রহণের মাত্রা ১২০ এর নীচে থাকবে। এর ফলে চিনি গ্রহণের মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

৩। পিনাট বাটার

স্বাস্থ্যকর ফ্যাট ও প্রোটিনে সমৃদ্ধ পিনাট বাটার ফল বা স্যান্ডউইচ এর সাথে খেতে চমৎকার লাগে। কিন্তু এর ক্যালোরি বেশি হওয়ায় খেতে হবে পরিমিত পরিমাণে। ২ টেবিল চামচ পিনাট বাটারে ২০০ ক্যালোরি থাকে। তাই ১ চামচের বেশি পিনাট বাটার খাওয়া উচিৎ নয়।

৪। ডিম

আপনি যদি সকালের নাশতায় প্রধান খাবার হিসেবে ডিম খেতে পছন্দ করেন তাহলে আপনার জানা প্রয়োজন যে, ২ টি ডিমে ১৬০ ক্যালোরি ও প্রচুর প্রোটিন থাকে। তাই সবজি বা সালাদের সাথে ১ টি ডিম যোগ করে খেতে পারেন।

৫। স্মুদি

ভিটামিনের চমৎকার উৎস স্মুদি। কিন্তু স্মুদিতে চিনির পরিমাণ বেশি থাকে বলে বেশি পান করা উচিৎ নয়। ক্যালোরির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য দিনে ১ বার ১ গ্লাসের ৪ ভাগের ৪ ভাগ পরিমাণ স্মুদি সকালে বা দুপুরে পান করতে পারেন। স্মুদিতে প্রচুর সবুজ উপাদান যোগ করার চেষ্টা করুন।

৬। সিরিয়াল

অনেকেই সকালে ফাইবার ও হোল গ্রেইনের উৎস সিরিয়াল খেতে পছন্দ করেন। ২ কাপ সিরিয়ালে ২০০ ক্যালোরির বেশি থাকে।