মেইন ম্যেনু

“আমার ওপর থুতু দেওয়া হত, সেক্সের মুহূর্তে আমাকে মারধরও করা হত”

1476952547

“আমার ওপর থুতু দেওয়া হত। শুধু তাই নয়, যৌন মুহূর্তে আমাকে মারধরও করা হত”, নিজের স্বামীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগই এনেছেন কানাডার বিশ্বখ্যাত মডেল এবং অভিনেতা পামেলা অ্যান্ডারসন। তাঁর আরও অভিযোগ, “বিছানায় একজন পর্ন তারকার মত ব্যবহার করা হত। এই ধরনের আচরণে কখনই আনন্দ পেতাম না। অন্তরঙ্গ মুহূর্তে চড় মারা, থুতু দেওয়া, আঘাত করা, কখনই আমার ভালো লাগত না। আমি এই নোংরামির শিকার হয়েছি”।

প্লেবয় ম্যাগাজিনে থাকার সময় তাঁর সেক্স টেপ চুরি হওয়া নিয়েও মুখ খোলেন পামেলা। তিনি বলেন,”আমি প্লেবয় ম্যাগাজিন থেকে নিজেকে সরিয়ে নিতে চেয়েছিলাম। আমার বাড়ি থেকে যখন আমার সেক্স টেপ চুরি হল এবং তামাম দুনিয়ার কাছে তা পৌঁছে গেল, যা মানুষ কোনও দিনই দেখতে পারত না, তাই দেখল, আমার ভালো লাগেনি”। পামেলা এও বলেন, “প্লেবয় ম্যাগাজিনকে কোনওদিন পর্নগ্রাফিক বলে মনে করি না। আমি খুবই রোম্যান্টিক। আমি সেক্সি হতেও পছন্দ করি। সব মেয়েরাই সেক্সি হতে পছন্দ করেন”।

তিনি বরাবরই জোর দিয়েছেন ঘনিষ্ঠতার উপর। আর এই ঘনিষ্ঠতার গুরুত্ব ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ‘সেক্স বম্বের’ মুখে উঠে এল, “আমরা (প্লেবয়) বরাবরই একটা ইন্দ্রি়য়গ্রাহ্য বিপ্লব চেয়েছিলাম। অন্তরঙ্গ সম্পর্কের অর্থ ‘উত্তম যৌনতা’। আমরা কখনই কাম বিমুখ হওয়ার কথা বলি না, বেশি করে বলি ‘উত্তম যৌনতা’র কথা”।