মেইন ম্যেনু

আশরাফের বাসায় কাদের, একান্ত বৈঠক

asraf-220161128131846

প্রায় এক মাস পর দেশে ফেরার পর দিনই আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে দেখা করলেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। হেয়ার রোডে সৈয়দ আশরাফের সরকারি বাসভবনে প্রায় আধা ঘণ্টা কথা বলেন দুই নেতা। এর এক পর্যায়ে একান্তেও কথা বলেন তাঁরা।

সৈয়দ আশরাফ এবং ওবায়দুল কাদের- দুই জনেরই ঘনিষ্ঠ একাধিক নেতা এই বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান বেলা ১২টার দিকে আশরাফের বাসায় যান ওবায়দুল কাদের। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল।

বেলা সাড়ে ১২টার দিকে চার নেতা আশরাফের বাড়ি থেকে বের হন। এদের একজন নেতাও এই বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সৈয়দ আশরাফের বাসায় ওবায়দুল কাদেরের যাওয়ার বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানানো হয়নি। জানতে চাইলে একজন নেতা বলেন, এটা সৌজন্য সাক্ষাৎ ছিল। আশরাফ ভাই কাল দেশে ফিরেছেন, কাদের ভাই তার খোঁজ নিয়েছেন।

গত ২২ ও ২৩ অক্টোবরের জাতীয় সম্মেলনে সৈয়দ আশরাফের জায়গায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হন ওবায়দুল কাদের। এর আগের দুই সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন সৈয়দ আশরাফ।

জাতীয় সম্মেলন শেষে অসুস্থ স্ত্রীকে দেখতে প্রায় এক মাস লন্ডন থাকার পর রবিবার দেশে ফেরেন সৈয়দ আশরাফ। তার আরও দুই সপ্তাহ আগে ফেরার কথা থাকলেও নানা কারণে পেছায় দেশে ফেরা।

আওয়ামী লীগের একজন নেতা বলেন, ‘কাদের ভাই আশরাফ ভাইয়ের স্ত্রীর খোঁজ খবর নিয়েছেন।’

তবে স্বাস্থ্যের খোঁজখবর ছাড়াও দুই নেতা একান্তে কিছুক্ষণ কথা বলেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ওই বাসায় উপস্থিত একাধিক মানুষ।

দুই নেতার মধ্যে কী নিয়ে কথা হয়েছে- জানতে চাইলে দুই নেতার সঙ্গেই একজন বলেন, ‘কাদের ভাই দল চালানোর বিষয়ে আশরাফ ভাইয়ের কাছে সহযোগিতা চেয়েছেন।’ ওই ব্যক্তির ভাষ্যমতে, সৈয়দ আশরাফকে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তিনি দীর্ঘদিন তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তার অভিজ্ঞতা দলের জন্য মূল্যবান। এই অভিজ্ঞতা এখনও কাজে লাগাতে পারলে সেটা দলের জন্য ভালো হবে।

বৈঠকে উপস্থিত এক নেতার কাছে এর সত্যতা জানতে চাইলে তিনিও একই কথা বলেন। দুজনের ভাষ্যমতে ওবায়দুল কাদের আশরাফকে বলেন, ‘আপনি দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। আপনি আমাকে পরামর্শ দেবেন।’

জবাবে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘আপনি তো আমার নেতা। ছাত্র জীবনেরও আপনার নেতৃত্বে আমরা ছাত্রলীগ করেছিলাম। আপনি ডাকলে আমি সব সময়ই আসবো।’

এক পর্যায়ে সৈয়দ আশরাফকে নিয়মিত দলীয় কার্যালয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। জবাবে আশরাফ বলেন, ‘আপনি যখনই ডাকবেন, যে কোনো সহযোগিতা চাইবেন, আমি আসবো, পরামর্শ দেবো।’

তবে এই বৈঠকের বিষয়ে সৈয়দ আশরাফ বা ওবায়দুল কাদের- কারও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। আশরাফ বরাবর গণমাধ্যমকে এড়িয়ে চলতে পছন্দ করেন। আর ওবায়দুল কাদেরও এই বিষয়টি নিয়ে কিছু বলতে চাননি।

২০ তম জাতীয় সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদকের পদ হারালেও আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম সভাপতিমণ্ডলীতে জায়গা হয়েছে আশরাফের।