মেইন ম্যেনু

আশরাফ আমার ছোট ভাইয়ের মত : শেখ হাসিনা

image-4455-1477231653

আওয়ামী লীগের বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে নিজের ছোট ভাই হিসেবে দেখেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার কর্মদক্ষতারও ভুয়সী প্রশংসা করেছেন তিনি।

দলের ২০ তম জাতীয় সম্মেলনে সভাপতি হিসেবে অষ্টমবারের মতো পুনঃনির্বাচিত হন শেখ হাসিনা। আর প্রথমবারের মতো সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন ওবায়দুল কাদের।

দলের জাতীয় সম্মেলনে দ্বিতীয় দিনের আনুষ্ঠানিকতার শেষ পর্যায়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন শেষে কেন্দ্রীয় কমিটির বেশ কিছু নেতার নাম ঘোষণা করেন শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি গত কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফকে নিয়ে কথা বলেন তিনি।

সৈয়দ আশরাফের প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘তাকে যে কাজ দেয়া হয়, সবই সে দায়িত্ব নিয়ে করে। আজকে সে স্বতস্ফুর্তভাবে নতুন সাধারণ সম্পাদকের নাম প্রস্তাব করেছে।’

২০০৭ সালে জটিল রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে আসেন আশরাফ। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে সভাপতি শেখ হাসিনা এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল গ্রেপ্তার হলে দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে জিল্লুর রহমান এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সৈয়দ আশরাফ দায়িত্ব নেন।

কঠিন সে সময় দুই জনের দল পরিচালনা প্রশংসা কুড়ায় দলে। এরপর ২০০৯ সালের জাতীয় সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন সৈয়দ আশরাফ। ২০১২ সালেও তিনি পুনঃনির্বাচিত হন।

বাংলাদেশের রাজনীতিতে স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ হিসেবে প্রশংসা আছে সৈয়দ আশরাফের। এবারের জাতীয় সম্মেলনেও তার পুনঃনির্বাচনের কথা শোনা যাচ্ছিল গত কয়েক মাস ধরেই। তবে জাতীয় সম্মেলনের দুই দিন আগেই হঠাৎ তার বদলে ওবায়দুল কাদেরের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার গুঞ্জন উঠে। আর নেতৃত্ব নির্বাচনের আনুষ্ঠানিকতায় ওবায়দুল কাদেরের নাম প্রস্তাব করেন সৈয়দ আশরাফ নিজে।

জাতীয় সম্মেলনে দেয়া সমাপনী বক্তব্যে শেখ হাসিনা সাবেক সাধারণ সম্পাদকের পাশাপাশি প্রশংসা করেন নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরেরও। তিনি বলেন, ‘কাদের আমাদের সাবেক ছাত্র নেতা। সেও দায়িত্ববান।’

আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিন বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছে নতুন এই কমিটি। এই কমিটিই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের দায়িত্বে থাকবে। শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা আমাদেরকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, আমরা সেটা পালন করার চেষ্টা করবো, আগামী নির্বাচনে দল যেন আবারও ক্ষমতায় আসে, আমরা সে কাজ করবো।’

এরপর শেখ হাসিনা এপর সভাপতিমণ্ডলী সদস্যদের ঘোষণা করেন। বলেন, তিনটি পদ এখনও খালি আছে। এগুলো পরে ঘোষণা করা হবে। দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ্যদের নাম ঘোষণার পর শেখ হাসিনা বলেন, ‘সম্পদকীয়ের কিছু পদ খাছি আছে। দলের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাধারণ সম্পদকের সঙ্গে কথা বলে এই নাম ঘোষণা করবো। আপনাদের কোনো আপত্তি না থাকল আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই এসব নাম জানাবো।’