মেইন ম্যেনু

আয়রনের অভাব, বুঝবেন কীভাবে জেনে নিন

iron-big-20161112182030

শরীরে আয়রনের অভাব আজকাল বিরাট সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বহু মানুষকেই আয়রনের অভাবজনিত সমস্যায় ভুগতে দেখা যায়। বিশেয করে নারীদের মধ্যে এই ধরনের সমস্যা বেশি চোখে পড়ছে। আয়রনের অভাবে শরীরে স্বাভাবিক কার্যকলাপ বিঘ্নিত হয় এবং এই আয়রনের অভাবেই প্রচুর মানুষ ভোগেন রক্তাল্পতার মতো মারাত্মক রোগে। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে দেহে আয়রনের অভাবের ঘটেছে এই ব্যাপারটা অনেকে বুঝেই উঠতে পারেন না। তবে কিছু লক্ষণ দেখেই খুব সহজে নির্ধারণ করা যায়। আর যদি বোঝা যায়, শরীরে আয়রনের ঘাটতি রয়েছে, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শও খুব সহজে নেয়া যায়। জেনে নিন আপনার শরীরে আয়রনের ঘাটতিতে কোন কোন লক্ষণগুলো দেখা যেতে পারে।

* ক্লান্তি: আয়রনের অভাবের সবচেয়ে পরিচিত লক্ষণ হল ক্লান্তি আসা। কিন্তু একই সঙ্গে মনে রাখতে হবে অন্য কারণেও আপনি ক্লান্ত হতে পারেন।

* ত্বক ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া: আপনার ত্বক যদি ফ্যাকাশে দেখায় তার মানে আপনি অসুস্থ। রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা ঠিক থাকলে আপনার ত্বকে লালচে ভাব থাকবে। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে ঠোঁটের ভিতরের অংশ‚ দাঁতের মাড়ি আর চোখের ভেতরের অংশ পরীক্ষা করে দেখুন। যদি দেখেন তা সাদাটে দেখাচ্ছে বুঝতে হবে আপনার আয়রনের ঘাটতি রয়েছে।

* সহজে হাঁপিয়ে যাওয়া: মাত্র কয়েকটা সিঁড়ি ভাঙলেই কি আপনি হাঁপিয়ে যান বা আপনার শ্বাস দ্রুত হয়? তাহলে বুঝতে হবে আপনার রক্তে আয়রন কমে গেছে।

* মাথাব্যথা: মাথায় যখন যথেষ্ঠ পরিমাণে অক্সিজেন পৌঁছায় না তখন মাথাব্যথা হয়। তাই মাঝে মাঝেই মাথা ব্যথা বা মাইগ্রেনের ব্যথা আয়রনের অভাবের লক্ষণ হতে পারে।

* হঠাৎ করে উদ্বেগ বেড়ে যাওয়া: রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা কমে গেলে আপনি কোনো কারণ ছাড়াই উদ্বিগ্ন হতে পারেন বা হঠাৎ করে স্ট্রেস বেড়ে গেলে বুঝতে হবে আপনার রক্তে আয়রন কমে গেছে।

* অতিরিক্ত চুল পড়ে যাওয়া: অতিরিক্ত চুল উঠে যাওয়া কিন্তু অ্যানিমিয়ার লক্ষণও হতে পারে। দিনে ১০০টা চুল পড়া স্বাভাবিক। কিন্তু তার থেকে বেশি চুল পড়লে অবশ্যই ডাক্তারের কাছে যাবেন।

* থাইরয়েড গ্ল্যান্ড ঠিকমত কাজ না করা: হঠাৎ করে মোটা হওয়া বা শরীরের তাপমাত্রা কমে যাওয়া, সবই হাইপোথাইরোয়েডিজম-এর লক্ষণ হতে পারে। এমন কিছু হলে অবশ্যই চিকিৎসককে দেখান। সূত্র: আনন্দবাজার