মেইন ম্যেনু

ইংল্যান্ডকে ২৭৩ রানের টার্গেট দিল বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডর মধ্যকার চলা দুই ম্যাচ সিরিজের শেষ টেস্টে তৃতীয় দিনে এসে ইংল্যান্ডকে ২৭৩ রানের টার্গেট দিয়েছে বাংলাদেশ। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে রবিবার (৩০ অক্টোবর) নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করে আগের দিনের (শনিবার) ৩ উইকেটে ১২৮ রানের লিড হাতে নিয়ে খেলতে নামে বাংলাদেশ। এদিন বাকি ৭ উইকেট হারিয়ে স্বাগতিকরা যোগ করে ১৪৪ রান। ফলে এ ইনিংসে সব উইকেট হারিয়ে মুশফিকদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৯৬ রান।

তৃতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষে এদিন বাংলাদেশ পেয়েছে ১১৬ রান। আর উইকেট হারিয়েছে ৪টি। মধ্যাহ্ন বিরতির পর বাকি ২৮ রান পায় বাংলাদেশ।

এদিন দলীয় ২০০ রান পার করার পর ৭৮ রান করে মঈন আলীর এলবিডাব্লউয়ের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন ইমরুল কায়েস। দলীয় ২৩৮ রানের সময় ৪১ রান করে আদিল রশিদের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন সাকিব আল হাসান। এর কিছুক্ষণ পরই বেন স্টোকসের বলে অফ স্লিপে থাকা ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালেস্টার কুকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজ ঘরে ফেরেন টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ফেরার আগে মুশফিক করেন ৯ রান। ১০ রান করা সাব্বিরকে এলবিডাব্লউ করেন আদিল রশিদ। বেন স্টোকসের বলে উইকেট কিপার বেয়ারস্টয়র হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান তাইজুল ইসলাম। ফেরার আগে তিনি করেন ৫ রান। আদিল রশিদের বলে অফস্লিপে জো রুটের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন মেহদি হাসান মিরাজ। ফেরার আগে তিনি করেন ২ রান।

এর আগে সব উইকেট হারিয়ে ২৯ অক্টোবর (শনিবার) ২৪৪ রানে শেষ হয় ইংলিশদের প্রথম ইনিংস। ফলে ২৪ রানে পিছিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনংসে ব্যাটিং শুরু করে মুশফিকরা। এদিন ৩১ তম ওভারের শেষ বলে ৪৭ রান করে আউট হন ইমরুলের সাথে ৮৬ রানের জুটি গড়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বোল্ড করে তার উইকেটটি নেন অভিষেকি ইংলিশ অলরাউন্ডার জাফর আনসারি।

বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসের দলীয় ৬৫ রানের সময় জাফর আনসারীর বলে লেগ স্লিপে ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালেস্টার কুকের হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার তামিম ইকবাল। ফেরার আগে তামিম সংগ্রহ করেন ৪০ রান। এর পরপরই মাত্র ২ বল মোকাবেলা করে একইভাবে কুকের হাতে ক্যাচ দিয়ে তামিমের পথ ধরেন অনডাউনে নামা মমিনুল হক। বেন স্টোকসের বলে ফেরার আগে তিনি করেন মাত্র একটি রান।

৬৫ বলে টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ হাফসেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ওপেনার ইমরুল কায়েস। দিন শেষে ৮০ বলে ৫৯ রান নিয়ে অপরাজিত রয়েছেন তিনি।

ইংলিশদের পক্ষে জাফর আনসারী ২টি এবং বেন স্টোকস নিয়েছেন একটি উইকেট।