মেইন ম্যেনু

ঈশ্বরদীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

পাবনার ঈশ্বরদীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আন্তঃজেলা ডাকাতদলের ৩ ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ সময় গুলিবিদ্ধ অপর ৪ ডাকাত পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শুক্রবার ভোরে সাড়ে ৪টার দিকে ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের জয়নগর বড়ইচড়া চালের মোকামে এ ঘটনা ঘটে। র‌্যাব ডাকাতদের ব্যবহার করা ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং চাল বোঝাই ২টি ট্রাক উদ্ধার করেছে।

র‌্যাব-১২ পাবনা ক্যাম্পের অধিনায়ক বীনা রানী দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আন্তঃজেলা ডাকাতদলের অন্তত ৩০ জন সদস্য তিনটি ট্রাকে করে ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের উত্তরাঞ্চরের অন্যতম বৃহৎ চালের মোকাম জয়নগর বড়ইচড়া এলাকায় বাদশা রাইস মিলে ডাকাতি করতে আসে।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে র‌্যাব-১২ পাবনা ক্যাম্পের অধিনায়ক বীনা রানী দাসের নেতৃত্বে র্যাবের একটি টিম ভোর ৪টার দিকে ঘটনাস্থলে যায়। র্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতেরা র্যাবকে উদ্দেশ্য করে গুলি ছোড়ে। র্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

এক পর্যায়ে ডাকাতেরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ছয় ডাকাত গুলিবিদ্ধ হন। এদের মধ্যে দুজন নিহত হন। পরে গ্রামবাসীদের সহায়তায় গুলিবিদ্ধ আরো চার ডাকাতকে র্যাব আটক করতে সক্ষম হয়।

সকাল ৭টায় স্থানীয় লিচু বাজার থেকে আরো ডাকাতকে আহত অবস্থায় গ্রামবাসীদের সহায়তায় র‌্যাব আটক করে। আহত ৫ ডাকাতকে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে ভর্তি করা হলে সকাল সাড়ে ৮ টায় আরো ১ জন মারা যায়।

এদিকে র‌্যাব ঘটনাস্থল থেকে ডাকাতদের ব্যবহার করা ২টি রিভলবার, ১টি পিস্তল এবং চাল বোঝাই ২টি ট্রাক উদ্ধার করে।

র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, হতাহতদের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়। সকাল ৯টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের নাম পরিচয় র‌্যাব জানাতে পারেনি।

নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।