মেইন ম্যেনু

উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে নাডা

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ ‘নাডা’ উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে।

শনিবার সন্ধ্যায় ৬টায় আবহাওয়াসংক্রান্ত সর্বশেষ বুলেটিন প্রচার করেছে খুলনা বিভাগীয় আবহাওয়া অফিস।

খুলনা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুল আজাদ ওই বুলেটিনের বরাত দিয়ে জানান, মোংলা বন্দর থেকে ৩৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম, পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম, চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম ও কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে ৪৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে নাডা অবস্থান করছে।

তিনি জানান, আগামীকাল রোববার সকাল নাগাদ নাডা বরিশাল ও চট্টগ্রাম উপকূলীয় অঞ্চল অতিক্রম করবে।

এদিকে নিম্নচাপের প্রভাবে শুক্রবার ভোর থেকে খুলনাসহ বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হচ্ছে। শনিবার দুপুর ১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খুলনায় ১৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে। নিম্নচাপের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে।

এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। মোংলা সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

সাগরে অবস্থানরত সব ধরনের মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদেরকে গভীর সাগরে বিচরণ না করতে বলা হয়েছে।

মোংলা বন্দরের হারবার বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, দিনভর মোংলা বন্দর ও আউটার অ্যাংকরেছে পণ্যবোঝাই জাহাজগুলোতে বৃষ্টির মধ্যে কাজ হলেও ভারিবৃষ্টি ও দমকা হাওয়া শুরু হলে রাতের পালা থেকে বন্দরে পণ্য ওঠানামার কাজ বন্ধ রাখা হয়। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ নাডা মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের এসিএফ মোহাম্মদ হোসেন জানান, আজ সন্ধ্যা থেকে সুন্দরবনের বিভিন্ন খালে আশ্রয় নিতে শুরু করেছে বঙ্গোপসাগরে মাছ আহরণ করতে থাকা ফিশিং ট্রলারগুলো। সুন্দরবন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দুবলার চরের শুঁটকি জেলেপল্লীতে কয়েক হাজার জেলে-বহদ্দারদের নিরাপদে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

খুলনা আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা মল্লিক শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, নিম্নচাপের প্রভাবে খুলনাসহ বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হচ্ছে। শুক্রবার বেলা ১২টা থেকে শনিবার দুপুর ৩টা পর্যন্ত ৩৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। বৃষ্টিপাত রোববারও অব্যাহত থাকবে।