মেইন ম্যেনু

এই পুরুষটির ৩৫০ জন দেশ-বিদেশি ‘স্ত্রী’!

68649-landscape-1429901603-540274975

একজন বা দুজন নয়। এক্কেবারে ৩৫০ জন। ‘বিয়ে করা বউ’! তাদের মধ্যে কেউ ভারতের, কেউ আবার প্রবাসী। কেউ আবার বিদেশিও বটে। যে কায়দায় সে মেয়েদের ফাঁদে ফেলত, সেটা দেখে শুনে চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের।

মিষ্টি মিষ্টি কথায় আলাপ জমাত নারীদের সঙ্গে। খুব অল্পদিনের মধ্যেই সেই নারীর তার প্রেমে পড়ে যেতেন। আর তারপর সেই নারীকে বিয়ে করত ভেঙ্কট। এভাবেই চলছিল বেশ। বাড়ছিল স্ত্রী-এর সংখ্যাটা। তবে তার মাস্টার প্ল্যানের পুরো গল্পটা এটাই নয়…

দেশে বেশকিছু মেয়েকে ফুসলিয়ে ফাঁদে ফেলার পর, ভেঙ্কট রেড্ডি কোনওভাবে একটি বিজনেস ভিসা ও আমেরিকা যাওয়ার পাসপোর্ট জোগাড় করে নেয়। গ্র্যাজুয়েট না হলেও সে ইংলিশে চোস্ত। আমেরিকা পৌঁছাবার পর একটি বিখ্যাত ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে সে তার প্রোফাইল আপডেট করে। এরপরই তার কাছে বিয়ের প্রস্তাব আসতে থাকে। তখন প্রথমে এক প্রবাসী ভারতীয় মেয়েকে টার্গেট করে সে। তার কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় ২০ লাখ টাকা। এভাবে আরও বেশকিছু মেয়েকে ফাঁদে ফেলে ভেঙ্কট।

অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ে রেড্ডি। খোঁজ নিয়ে পুলিশ জানতে পারে তার ‘স্ত্রী’র সংখ্যাটা ১ বা ২ নয়, ৩৫০। প্রায় ‘সারা বিশ্বে’ই ছড়িয়ে রয়েছে তার ‘স্ত্রী’। তেলাঙ্গানা থেকে কানাডা পর্যন্ত।-জিনিউজ