মেইন ম্যেনু

এই যুবককে চিনে নিন! কীর্তি শুনলে ‘ধুম’-এর জনকে মনে পড়বে

‘ধুম’-এ জন আব্রাহামের চরিত্রটিকে নিশ্চয়ই মনে আছে। প্রচণ্ড গতিতে বাইক চালিয়ে অভিনব কায়দায় একের পরে এক চুরি করত জন এবং তার বাহিনী।

বাস্তবেও এমনই এক চোরের উপদ্রবে নাভিশ্বাস উঠেছিল শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের অধীনস্ত বিভিন্ন থানার পুলিশ আধিকারিকদের। অবশেষে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে বিশ্বজিৎ চৌধুরী ওরফে বিটলা নামের এই ছিনতাইবাজ। বিটলার চুরির কায়দাও সিনেমার জন আব্রহামের মতো ছিল। যা কিনা পুলিশ কর্মীদের মধ্যেও চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছিল। ঘণ্টায় ১০০ থেকে ১২০ কিলোমিটার গতিবেগে বাইক চালিয়ে চুরি, ছিনতাই করত সে। মূলত হাইওয়ে দিয়ে দামি জিনিস নিয়ে যাওয়া ট্রাকগুলিই ছিল বিটলার এবং তার সঙ্গীদের টার্গেট। শিলিগুড়ির বিভিন্ন থানায় তার নামে ১৭টি মামলা রয়েছে। বেশীরভাগই চুরি, ছিনতাই ও গাড়ি হাইজ্যাকিং এর মামলা। অপকর্ম করে দ্রুত বাইক চালিয়ে এলাকা ছাড়ত বিটলা এবং তার সঙ্গীরা।

বাইক চালানোর এই গুণেই অন্য ছিনতাকারীদের প্রিয় পাত্র হয়ে উঠেছিল বিটলা। তাকে টাকা দিয়ে বাইকের পিছনে বসেও বহু ছিনতাই এর ঘটনা ঘটিয়েছে অনেকেই। তাদের বেশিরভাগ পুলিশের জালে ধরা পড়লেও বিটলাকে ধরতে এতদিন নাকানিচোবানি খেয়েছে পুলিশ। অবশেষে সোমবার গভীররাতে শিলিগুড়ির নিউ জলপাইগুড়ি থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে বিটলাকে। তার কাছ থেকে একটি পিস্তলও পাওয়া গিয়েছে।

কিন্তু জন আব্রাহামের আদলে বাইক আরোহী ছিনতাইবাজকে ধরতে কি ‘ধুম’-এর উদয় চোপড়ার মতো কারও সাহায্য নিয়েছিল পুলিশ? সেই উত্তর অবশ্য পাওয়া যায়নি।