মেইন ম্যেনু

এই ৮০ বছরের বৃদ্ধ মডেলকে দেখলে সালমানও লজ্জা পাবেন!

৮০ বছর বয়সেও ইনি তরতাজা যুবক। বৃদ্ধ! এই শব্দ তার অভিধানে নেই। প্যাশনের জোরে তিনি এখন ইন্টারনেট দুনিয়ায় হটেস্ট গ্র্যান্ডপা হয়ে ঝড় তুলে ফেলেছেন। পেশায় একজন চীনা মডেল।

খোলাখুলি বলতে গেলে, ওয়াং দেসুন একজন ৮০ বছরের সফল মডেল। গত বছর থেকেই মডেলিংকে কেরিয়ার হিসেবে বেছে ইতোমধ্যেই মাত করেছেন। তার ঝুলিতে মডেলিং-এর অভিজ্ঞতা ভরপুর থাকলেও, এমন সাফল্য আগে কখনও হয়নি। বয়সটাকে তিনি সংখ্যা হিসেবেই দেখেন, কিন্তু মনে মনে তিনি ২০ বছরের যুবক। র‌্যাম্পে যখন হাঁটেন, তখন বোঝা দায়, তার বয়স ৮০! বয়সের দিক থেকে বিচার না করে তিনি প্রফেশনাল পথেই মডেলিং করতে চান।

৮০ -তেও ইনি তরতাজা যুবক। বৃদ্ধ! এই শব্দ তার অভিধানে নেই। প্যাশনের জোরে তিনি এখন ইন্টারনেট দুনিয়ায় হটেস্ট গ্র্যান্ডপা হয়ে ঝড় তুলে ফেলেছেন।

খোলাখুলি বলতে গেলে, ওয়াং দেসুন একজন ৮০ বছরের সফল মডেল। গত বছর থেকেই মডেলিংকে কেরিয়ার হিসেবে বেছে ইতোমধ্যেই মাত করেছেন। তার ঝুলিতে মডেলিং-এর অভিজ্ঞতা ভরপুর থাকলেও, এমন সাফল্য আগে কখনও হয়নি। বয়সটাকে তিনি সংখ্যা হিসেবেই দেখেন, কিন্তু মনে মনে তিনি ২০ বছরের যুবক। র‌্যাম্পে যখন হাঁটেন, তখন বোঝা দায়, তার বয়স ৮০! বয়সের দিক থেকে বিচার না করে তিনি প্রফেশনাল পথেই মডেলিং করতে চান।

এই বয়স কীভাবে ধরে রেখেছেন, জানতে ইচ্ছে করছে তো। মিষ্টি জাতীয় খাবার তার খাদ্যতালিকা থেকে বাদ যায়নি। যা প্রাণে চায়, তাই খান। শরীরকে ফিট রাখতে প্রতিদিন সকালে ৩ ঘন্টা ধরে যোগ-ব্যায়াম করেন। এখনও প্রতিদিন আধঘন্টা সাঁতার কাটেন। চীনের রাজধানী বেজিংয়ের ফ্যাশন স্কুল থেকে মডেলিংয়ের কোর্স করার পর রূপালি চুল নিয়েই তিনি র‌্যাম্পে ডেবিউ করেন। নিজের স্বপ্নকে সামনে এনেছেন এই বয়সেও। যারা নিজেকে বয়স্ক ভাবেন, তাদের জন্য ওয়াং একজন জীবন্ত জীবাশ্ম।

অসাধারণ শরীরি ভাষা আর হাঁটাচলা, বলিষ্ঠ কোমরের অধিকারী ওয়াং-র মডেলিংয়ের ছবি এখন সোশ্যাল নেটওয়ার্কে তুফান তুলেছে। বয়স যে বাধা নয়, তা তিনি সকলের চোখে আঙুল তুলে দেখিয়ে দিয়েছেন। এবং সবসময় এটাই মনে করেন, প্রকৃতি বয়স নির্ধারণ করে, কিন্তু নিজেই নিজের মনকে নির্ধারণ ও নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ইন্ডিয়া টাইমস