মেইন ম্যেনু

এক ম্যাচ নিষিদ্ধ মিসবাহ

chk_captcha

দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে আট উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে এমনিতেই কোণঠাসা পাকিস্তান ক্রিকেট দল। তার মাঝেই দলটি পেল আরেকটি বড় দুঃসংবাদ। স্লো ওভার রেটের কারণে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন সাদা পোশাকে পাকিস্তানের অধিনায়ক মিসবাহ উল হক। ফলে হ্যামিল্টন টেস্টে তাকে ছাড়াই মাঠে নামতে হচ্ছে পাকিস্তানকে।

ক্রাইস্টচার্চে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ হওয়া প্রথম টেস্টে নির্ধারিত ১০৩ ওভারের চেয়ে দুই ওভার কম বোলিং করায় ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ম্যাচ রেফারি রিচি রিচার্ডসন মিসবাহর ওপর এ শাস্তি আরোপ করেন। এ ছাড়াও মন্থর গতির বোলিংয়ের কারণে অধিনায়ক মিসবাহসহ পুরো দলকেই জরিমানা গুনতে হচ্ছে। মিসবাহকে ম্যাচ ফির ৪০ শতাংশ ও অন্যদের ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার এলিট প্যানেলের ম্যাচ রেফারি রিচি রিচার্ডসন কর্তৃক সাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এই ঘোষণা দেয় আইসিসি।

যদিও নিষেধাজ্ঞায় মিসবাহর খুব বেশি ক্ষতি হচ্ছে না। শ্বশুরের মৃত্যুর কারণে গতকালই দেশে ফিরে গেছেন সাদা পোশাকে পাকিস্তান দলের নিয়মিত এই অধিনায়ক। রোববার মিসবাহর শ্বশুর না ফেরার দেশে পাড়ি জমান। তখন পরিবারসহ ক্রাইস্টচার্চেই ছিলেন ৪২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। শ্বশুরের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়ার পর স্থানীয় সময় বিকেলের মধ্যেই দেশের পথে রওনা দেন মিসবাহ।

২০১০ সালে পাকিস্তানের অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর মাত্র একটি টেস্টেই বাদ পড়েছিলেন মিসবাহ। স্লো ওভার রেটের নিষেধাজ্ঞার কারণে ২০১২ সালে গল টেস্টে ছিলেন না তিনি। সর্বশেষ ক্রাইসচার্চে মিসবাহ দুই ইনিংসে করেন যথাক্রমে ৩১ ও ১৩ রান।

আগামী ২৫ নভেম্বর থেকে হ্যামিল্টনে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে। এই টেস্টে পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দিবেন আজহার আলী।

তথ্যসূত্র: ইএসপিএন ক্রিক ইনফো