মেইন ম্যেনু

এবার আলোচনায় আমির খান ও সানি লিওনের বিয়ে

amir-khan20161110143838

চোখ কপালে তুলে রাখার কিচ্ছু নেই। বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সানি লিওনের প্রতি সম্প্রতি আমির খানের দরদ দেখে আমির খানের সঙ্গে সানি লিওনের বিয়ে নিয়েই মন্তব্য করে বসলেন বেফাঁস কথাবার্তায় আলোচনায় থাকতে পছন্দ করা কমল আর খান। যিনি নিজেকে ‘কেআরকে’ বলে পরিচয় দিতে খুবই তৃপ্তিবোধ করেন!

কিছুদিন পরপরই তিনি ইন্ডাস্ট্রির বড় বড় তারকাদের টার্গেট করেন। তাদের বাক্যবানে আক্রমণ করে নিজেকে আলোচনায় রাখেন কেআরকে। এবারে তিনি বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খানকে টার্গেট করেছেন। নতুন এক টুইটে কেআরকে বলেছেন, ‘আমির খান তার স্ত্রী কিরণ রাওকে ডিভোর্স দিয়ে চাইলেই সানি লিওনকে বিয়ে করতে পারেন!’

তার দাবি, নির্লজ্জের মতো নাকি সানি লিওনকে প্রোমোট করছেন আমির খান! আর তাদের বন্ধুত্ব এতটাই জমে উঠেছে যে কিরণকে ডিভোর্স দিয়ে সানিকে বিয়ে করলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। কেআরকে টুইটে লিখেছেন, পর্নস্টার হওয়ার কারণে ব্রিটিশ সিনেমা হলে সানির বলিউড ‘বেইমান লাভ’ দেখাতে অস্বীকার করেছে। অথচ আমির খান সানি লিওনকে প্রোমোট করেই যাচ্ছেন।

এর আগে একটি সাক্ষাৎকারে সানি লিওনকে তার অতীত পেশা নিয়ে বিব্রতকর কিছু প্রশ্ন করা হয়। জানতে চাওয়া হয়, আমির খানের মতো অভিনেতা তার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে রাজি হবেন কিনা? সেখানে সানি বিষয়টি কৌশলে এড়িয়ে যান। তবে বিষয়টি জানতে পেরে সাংবাদিকদের কাছে আমির সানির সাপোর্টে এগিয়ে এসেছিলেন। প্রকাশ্যে জানিয়েছিলেন, সানির সঙ্গে অভিনয় করতে তার কোনো সমস্যা নেই। এমনকী সানির অতীত নিয়েও তার কোনো মাথাব্যথা নেই। এরপর এ বছর দিওয়ালি পার্টিতেও আমির নিজের বাড়িতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন সানি লিওনকে। সেখানে স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবারকে নিয়ে হাজিরও ছিলেন নায়িকা।

এসব দেখেই কেআরকের প্রশ্ন- একজন পর্নস্টারের সঙ্গে আমিরের এতো বন্ধুত্ব, মাখামাখি কতোটা গ্রহণযোগ্য এবং সহ্য করার মতো? তবে এখন পর্যন্ত আমির বা সানি কেউই এ নিয়ে মুখ খুলেননি। অবশ্য, কখনোই কোনো তারকা ‘পাগল’ ভেবে কমল আর খানের কোনো কথারই জবাব দেন না।