মেইন ম্যেনু

এবার নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন মিশা-জাবেদ

1478919499

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আগামী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন খলনায়ক মিশা সওদাগর ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনে সভাপতি পদে মিশা ও সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত।

শুধু তাই নয়, এবারের নির্বাচনে এ দুজন প্রার্থীকে নীতিগতভাবে সমর্থন জানিয়েছেন চিত্রনায়ক সোহেল রানা (মাসুদ পারভেজ), ফারুক, আলমগীর, খলঅভিনেতা মিজু আহমেদ, ডিপজল, প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, নৃত্যপরিচালক মাসুম বাবুল, ফাইট ডিরেক্টর আরমান ও চুন্নুসহ অনেকে। মিশা-জায়েদ পরিষদের অন্যান্য প্রার্থী চূড়ান্ত করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। কিছুদিনের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ প্যানেল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন মিশা সওদাগর।

জানা গেছে, এবারের নির্বাচনে বর্তমান সভাপতি চিত্রনায়ক শাকিব খান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। যদিও এ বিষয়ে তিনি এখনও প্রকাশ্যে কোনো ঘোষণা দেননি। অন্যদিকে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসানের অবস্থাও তথৈবচ।

অনুসদ্ধানে জানা গেছে, সাধারণ শিল্পীরা বর্তমান কমিটির ওপর নাখোশ। কারণ প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচিত হওয়ার পর গত দুই বছরে শিল্পীদের জন্য তেমন কোনো উন্নয়ন কিংবা সুবিধামূলক কাজ তারা করেননি। এ কারণে আগাম নির্বাচনে মিশা-জায়েদ পরিষদ বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে থাকবে বলে জানা গেছে।

বিশ্বস্ত সূত্রে আরও জানা গেছে, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে অন্য কেউ প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনাও ক্ষীণ। এরমধ্যে কারো কারো নাম শোনা গেলেও তারা শেষ পর্যন্ত প্রার্থিতা টিকিয়ে রাখতে পারবেন কী না কিংবা পূর্ণাঙ্গ প্যানেল দিতে পারবেন কী না তা নিয়ে অনেকেই সন্দিহান।

নির্বাচন প্রসঙ্গে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জায়েদ খান বলেন, ‘এবারের নির্বাচনে নীতিগতভাবে আমরা সবাই এক হয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। চলচ্চিত্রের স্বার্থে, শিল্পীদের স্বার্থে যা করার দরকার, আমরা তাই করব। কোনো বাধাই আমাদের রুখতে পারবে না বলে আমি বিশ্বাস করি।’ -যুগান্তর।