মেইন ম্যেনু

নাসিরনগরে হামলা

এমপি-মন্ত্রীকে বাঁচাতে পুলিশ মিথ্যা ও সাজানো প্রতিবেদন দিয়েছে : বিএনপি

bnp-logo-lg20160804181640

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় পুলিশের দেওয়া প্রতিবেদনকে সাজানো ও মিথ্যা উল্লেখ করে তা প্রত্যাখান করেছে বিএনপি।

মঙ্গলবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের ১৮ জন নেতার পাশাপাশি নাসিরনগর উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি জামাল উদ্দিন এবং ইউনিয়ন যুবদলের সহ সভাপতি বিল্লাল হোসেন নাম জড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মূলত স্থানীয় এমপি ও মন্ত্রীকে বাঁচানোর জন্য পুলিশ এ মিথ্যা প্রতিবেদন দাখিল করেছে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল শুধু হাস্যকরই নয়, এটা দুষ্কর্মকে ঢেকে দেওয়ার অপচেষ্টা মাত্র।’

প্রতিবেদেনে বিএনপি নেতাদের নাম উল্লেখ থাকায় তার তীব্র নিন্দা জানান রিজভী।

সার্চ কমিটি গঠন প্রসঙ্গে

১৮ নভেম্বর হোটেল ওয়েস্টিনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলনের বিষয়টি উল্লেখ করে রিজভী বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ও নতুন নির্বাচন কমিশন কাঠামো গঠনে রূপরেখা তুলে ধরবেন তিনি।

কাজী রকিব মার্কা নির্বাচন করতেই শাসকদল রাষ্ট্রপতিকে ব্যবহার করে তীব্র আওয়ামী অনুভূতিসম্পন্ন সার্চ কমিটি গঠন করতে চায় এমন অভিযোগ করে রিজভী বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ চায় বিএনপি। কিন্তু রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি গঠন করলে সেটি যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেরই প্রতিফলন হবে সেই বিষয়ে সন্দেহের কোনও অবকাশ নেই। সেই নির্বাচনের পরিণতি কী হবে সেটির দৃষ্টান্ত কাজী রকিব উদ্দিনের নির্বাচন কমিশন দেশবাসীকে দেখিয়ে দিয়েছে।

রিজভী বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মধ্যযুগীয় সম্রাটের মতো একচেটিয়া ক্ষমতা ভোগ করেন। এখানে রাষ্ট্রপতির কতটুকু স্বাধীন ক্ষমতা আছে তা দেশবাসী ভালোভাবেই জানে। তাই নির্বাচন কমিশনের জন্য সার্চ কমিটি গঠনে শাসকদলের এমন অশুভ ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটালে দেশ চরম অস্থিতিশীল হয়ে উঠবে এবং জনগণ তা কখানো মেনে নেবে না।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভীর সঙ্গে ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হারুন অর রশিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, আব্দুল আউয়াল খান, সহ দফতর সম্পাদক মো.মুনির হোসেন প্রমুখ।