মেইন ম্যেনু

এ সপ্তাহে খাদিজার বাম হাত ও ব্রেনে অস্ত্রোপচার

khadiza

সিলেটে ছাত্রলীগ নেতার চাপাতির কোপে গুরুতর জখম খাদিজা আক্তার নার্গিসের বাম হাত ও ব্রেনে অস্ত্রোপচার আগামী দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে করা হবে বলে জানিয়েছেন স্কয়ার হাসপাতালের নিউরো সার্জন ও খাদিজার চিকিৎসক ডা. আবদুস সাত্তার।

খাদিজার সার্বিক বিষয় জানার জন্য শনিবার রাতে যোগাযোগ করা হলে ডা. সাত্তার বলেন, খাদিজার বাম হাতে প্রথমবারের মতো অর্থপেডিক্সের অস্ত্রোপচার করা হবে। এরপর তার ব্রেনে অস্ত্রোপচার করা হবে। বার বার এনেসথেসিয়া দিয়ে অজ্ঞান করা ঠিক হবে না, তাই একদিনেই খাদিজার শরীরে দুটি অস্ত্রোপচার করা হবে।

এদিকে খাদিজা তার ডান ও বাম পাশ নড়াচড়া করতে পারছেন বলেও জানান ডা. রেজাউস সাত্তার।

খাদিজার বাবা মাশুক মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ সপ্তাহে খাদিজার বাম হাতে অপারেশন করা হবে। আর মাথার অপারেশন কবে হবে তা চিকিৎসকরা এখনও জানান নি।

স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হবার আগে থেকেই খাদিজা তার বাম পাশ নড়াচড়া করতে পারছিল না। এদিকে গত মাসে খাদিজার ডান হাতে অস্ত্রোপচার করা হলেও বাম হাতে এবারই প্রথমবারের মত অস্ত্রোপচার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গত সপ্তাহের শুরু থেকে একটু বেশি কথা বলতে পারছে খাদিজা। আর সবাইকে আগের থেকে ভালোভাবে চিনতে পারলেও মাঝে মধ্যে সমস্যা হচ্ছে- এমন কথা জানান খাদিজার বাবা মাশুক মিয়া।

তরল জাতীয় খাবারের পাশাপাশি খাদিজাকে পুডিং, ঝাউ, সেমাই খাওয়ানো হচ্ছে। এছাড়া শনিবার প্রথম এক টুকরো আপেল খাওয়ানো হয়।

গত ৩ অক্টোবর শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবি) ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম সিলেট এমসি কলেজের পুকুর পাড়ে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজছাত্রী খাদিজাকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

ওই ঘটনার পর প্রথমে খাদিজাকে সিলেটে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ৪ অক্টোবর ভোরে ঢাকায় আনা হয়। ওই দিন দুপুরে স্কয়ার হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা তাকে ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখেন।