মেইন ম্যেনু

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র’ শীর্ষক বিতর্ক প্রতিযোগিতা

image-debates-1

মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম : পরিবেশসচেতন মানুষের কাছে এখন ‘রামপাল’ মানে সুন্দরবনবিধ্বংসী কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প। রামপাল কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়ে দেশে এবং বিদেশে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা ।

দেশে বিদ্যুৎ চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে রামপালে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে সুশীলসমাজ ও পরিবেশকর্মীরা সুন্দরবন রক্ষার স্বার্থে এ প্রকল্পটি অন্যত্র স্থানান্তরের দাবি জানিয়ে আসছেন। এই প্রেক্ষাপটে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় (জাককানইবি) লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালনবিদ্যা বিভাগে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো ‘রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র’ শীর্ষক এক বিতর্ক প্রতিযোগিতা। চতুর্থ ব্যাচের অংশগ্রহণে এই বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজনে ছিলো লোক প্রশাসন বিভাগের চতুর্থ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, চীন ও জাপানে ব্যাপকভাবে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হচ্ছে উল্লেখ করে পক্ষ দলের বক্তারা বলেন, পরিবেশ সুরক্ষা বিবেচনা করে নতুন আধুনিক এবং বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে ‘রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র’ শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থানের নতুনমাত্রা সৃষ্টি করবে।

পানি দূষণ ও সুন্দরবনের প্রকৃতিক সৌন্দর্য ঝুঁকি এবং নানামূখী যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিপক্ষে অবস্থানরত দলের বক্তারা বলেন, শুধু স্থানীয়ভাবে শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থানের বিষয়টি বিবেচনায় পরিবেশ নষ্ট করে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে।

প্রতিযোগিতায় ‘রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের’ পক্ষে দলকে পরাজিত করে বিপক্ষ দল বিজয়ী হয়। এবং বিপক্ষ দলের মোঃ হেদায়েত উল্লাহ শ্রেষ্ঠ বক্তা হিসেবে মনোনীত হয়। অনুষ্ঠানে উক্ত বিভাগের শিক্ষার্থীরাও উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিযোগিতার মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালনবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক মাহযাবিন সুলতানা মিতুল।