মেইন ম্যেনু

কর্মচারীদের বেতন বাড়াতে নিজের মাইনে কমালেন বস, চমক দিতে যা করল কর্মীরা

1478152286

কতরকম ঘটনাই না ঘটে চলে প্রতিনিয়ত বিশ্বজুড়ে। তার কিছু আমাদের হৃদয়ে রয়ে যায় দীর্ঘদিন ধরে, কিছু আবার শোনার কয়েক মুহূর্ত পরেই মাথা থেকে হাওয়া। এই হৃদয়স্পর্শী গল্পটা অবশ্য রয়েই যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের একটি জনপ্রিয় সংস্থার নাম ‘গ্র্যাভিটি পেমেন্টস’ যা মূলত ক্রেডিট কার্ড প্রসেসিং এবং বিভিন্ন আর্থিক লেনদেনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে ২০০৪ সাল থেকে। এই সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও বর্তমান সিইও হলেন ড্যান প্রাইস। গল্পটা মূলত তাঁকে নিয়েই। তবে এই গল্পের অঙ্গ তাঁর প্রতিষ্ঠানের কর্মরত কর্মীরাও।

ড্যান-এর নিজের বার্ষিক বেতন ছিল প্রায় ৭ কোটি (ভারতীয় অর্থে) টাকা। তাঁর প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের বার্ষিক বেতন ছিল কমবেশি ৩০ লক্ষ টাকা। তবে একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, কোনও একদিন ড্যান অনুভব করেন, নেতার কাজ নেতৃত্ব দেওয়া, একই সঙ্গে যাঁদের জন্য প্রতিষ্ঠান চলছে, তাঁদের প্রতিও সবদিক থেকে ন্যায়বিচার করা। তাই তিনি তাঁর কর্মীদের বেতন বাড়ানোর জন্য নিজের বেতন কমিয়ে ৭ কোটি থেকে নিয়ে এসেছেন ৪৬ লক্ষ টাকায়। আর কর্মীদের মাইনে বাড়িয়ে করেছেন ৪৬ লক্ষ টাকা।

স্বভাবতই বিষয়টিতে অভিভূত হয়ে পড়েন ‘গ্র্যাভিটি পেমেন্টস’-এর কর্মীরা। ‘বস’-কে রিটার্ন গিফট দেওয়ার জন্য তাঁরা শুরু করেন প্রস্তুতি। প্রায় ৬ মাস প্রত্যেকে মাইনে থেকে বাঁচিয়ে তাঁরা তাঁদের সিইও-কে একটি টেসলার মডেল ৭ গাড়িটি দেন।

ড্যান জানিয়েছেন, এটা তাঁর স্বপ্নের গাড়ি। অভিভূত ড্যান যখন ফেসবুকে গাড়ির ছবি পোস্ট করেন, তখনও তিনি লেখেন ‘আমি এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না। ‘গ্র্যাভিটি পেমেন্টস’-এর কর্মীরা ৬ মাস টাকা বাঁচিয়ে আমাকে একটা স্বপ্নের গাড়ি গিফট করেছে।’ -এবেলা।