মেইন ম্যেনু

কাঁটাতারের ওপার থেকে ফেলা হলো লাশ

benapole_dead_body-02_28813_1477507302-1

বেনাপোল চেকপোস্টের বিপরীতে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের প্রাচীরের কাঁটাতারের ওপর দিয়ে একটি অজ্ঞাত লাশ (৪৪) ফেলা হয়েছে।

বুধবার বিকাল ৫টার সময় বাংলাদেশী কৃষকরা মাঠে ঘাস কাটতে গিয়ে লাশটি দেখতে পেয়ে বিজিবি ও পুলিশকে খবর দেয়।

এখনও লাশটি ভারত সীমানায় থাকায় দু’দেশের কেউ সেটি উদ্ধার করছে না।

ভারতের পাশ থেকে লাশটি বাংলাদেশের দিকে ফেলে দেয়ার সময় তার গায়ের শার্ট সীমানা প্রাচীরের কাঁটাতারের বেড়ায় আটকে ঝুলতে দেখা গেছে।

স্থানীয়দের ধারণা, বিএসএফ সদস্যরা তাকে নির্যাতনের পর হত্যা করে মৃতদেহটি ফেলে দেয়। এসময় তার শরীরে থাকা শার্টটি কাঁটাতারের সঙ্গে জড়িয়ে যায় এবং লাশটি নিচে পড়ে যায়।

ওই এলাকায় সাধারণ মানুষের চলাচল কম থাকায় মৃতদেহটি মানুষের চোখে পড়েনি। তবে লাশ দেখে ধারণা করা হচ্ছে, একদিন আগে তাকে মেরে ফেলে রাখা হয়েছে।

বেনাপোল পোর্ট থানা এবং বিজিবি ও বিএসএফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশটি কার তা চিহ্নিত করতে না পেরে কেউ লাশটি উদ্ধার করেনি।

বেনাপোল পোর্ট থানার এএসআই মতিউর রহমান এবং বেনাপোল চেকপোস্ট বিজিবি ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার নজরুল ইসলাম জানান, লাশটি যদিও কাঁটাতারের ওপর দিয়ে এ পাশে ফেলে দেয়া হয়েছে, কিন্তু যে অংশে লাশটি পড়ে রয়েছে সেটি ভারত সীমানায়। এজন্য বাংলাদেশের কোনো প্রশাসন লাশটি উদ্ধার করছে না।

বিজিবি’র বেনাপোল সদর ক্যাম্পের সুবেদার গিয়াসউদ্দিন জানান, ভারতের টার্মিনালের মধ্যে কে বা কারা ওই ব্যক্তিকে হত্যা করেছে। হত্যার পর টার্মিনালের প্রাচীর ও কাঁটাতারের ওপর দিয়ে লাশটি ফেলে দেয়। লাশটি যেহেতু ভারত সীমান্তে, সেহেতু সেটি ভারতীয় পুলিশ নিয়ে যাবে।

এদিকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিএসএফের একটি টিম লাশ দেখে যাওয়ার সময় জানায়, লাশটি তারা চিহ্নিত করতে পারেনি। কোন দেশের লাশ সেটাও বলতে পারেনি।