মেইন ম্যেনু

কানাডায় এই প্রথমই হিজাব পরে টিভি উপস্থাপনায় জিনেলা মাসা

কানাডায় এই প্রথম হিজাব পরে টিভি উপস্থাপনার অনুমতি পেলেন জিনেলা মাসা নামের ২৯ বছর বয়সী এক মুসলিম নারী। এটি নিঃসন্দেহে বিশ্বের মুসলমানদের জন্য বড় ধরণের সুখবর। কোনো ধর্মই ছোট নয়। ধর্মীয় পোশাক যার যার ব্যক্তিগত রুচি এবং পছন্দের পরিচায়ক। আর সে কারণেই হিজাব পরে টেলিভিশনে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করার অনুমতি পেলেন জিনেলা।

টুইটারে নিজের অনুভূতির কথা জানিয়ে জিনেলা লিখেছেন, ‘অবশেষে স্বপ্ন পূরণ হলো। এর আগে হিজাব পরে কেউ টেলিভিশনে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেননি। আমার জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা এটি।’

কানাডার সিটি নিউজ-এ কর্মরত রয়েছেন জিনেলা। গত সপ্তাহে চ্যানেলের সম্পাদক আচমকাই অনুষ্ঠান সঞ্চালনার দায়িত্ব দেন তাকে। প্রথমে অবাক হলেও, দক্ষতার সঙ্গেই কাজ করছেন তিনি। তারপর থেকেই শুভেচ্ছা বার্তা পাচ্ছেন।

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে দেশের প্রথম হিজাব পরিহিতা টেলিভিশন সাংবাদিক হিসেবে ওই খবরের চ্যানেলে যোগ দিয়েছিলেন জিনেলা। মাত্র এক বছরের মধ্যেই ফের নতুন ইতিহাস গড়লেন তিনি। গত কয়েক বছর ধরে ইউরোপ ও আমেরিকায় বিভিন্ন জায়গায় সন্ত্রাস হামলার জের ধরে মানুষের মনে মুসলিম ভীতি তৈরি হয়েছে।

ইসলাম এবং মুসলিম বিদ্বেষকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে অনেকেই। বর্তমানে বর্ণ বিদ্বেষের সবচেয়ে বড় একটি উদাহরণ হচ্ছেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্প সম্পর্কে জিনেলা বলেন, ‘ট্রাম্পের মতো একজন মুসলিম বিদ্বেষী মানুষ একটি দেশের প্রেসিডেন্ট এটা ভাবলেই ভয় হয়।’