মেইন ম্যেনু

কুয়ালালামপুরের পথে ঢাকার মিডিয়া সেলিব্রেটিরা

senior-journalists-from-dhaka-on-the-way-to-kuala-lumpur-02

মাঈনুল ইসলাম নাসিম : প্রবাসী বাংলাদেশীদের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বরা ১৭ নভেম্বর রাতে কুয়ালালামপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করছেন। অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন (আয়েবা)’র ব্যবস্থাপনায় ১৯ ও ২০ নভেম্বর মালয়েশিয়ার রাজধানীতে অনুষ্ঠিতব্য প্রবাসী বিশ্ব সম্মেলন ১ম বাংলাদেশ গ্লোবাল সামিটকে ঘিরে ইতিমধ্যে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে বিভিন্ন পেশায় সুপ্রতিষ্ঠিত গুণী বাংলাদেশীরা যোগ দিচ্ছেন এই মহামলিনমেলায়।

সিনিয়র সাংবাদিক ও সম্পাদকদের মধ্যে বৃহষ্পতিবার রাতের ফ্লাইটে কুয়ালালামপুর রওয়ানা হচ্ছেন দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন সম্পাদক আবেদ খান, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)’র প্রেসিডেন্ট এবং একুশে টিভি’র সিইও মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক এবং নিউজ টোয়েন্টিফোরের সিইও নঈম নিজাম, ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত, দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, সময় টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও আহমেদ জুবায়ের, বাংলা ভিশনের হেড অব নিউজ মোস্তফা ফিরোজ দিপু এবং ঢাকার দুই সিনিয়র সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমান এবং মাহমুদ হাফিজ। একাত্তর টিভির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোজাম্মেল বাবুও যোগ দিচ্ছেন সামিটে।

এদিকে বাংলাদেশ গ্লোবাল সামিটের সংবাদ সংগ্রহের জন্য বৃহষ্পতিবার রাতে কুয়ালালামপুর রওয়ানা হচ্ছেন একাত্তর টিভির বিশেষ প্রতিনিধি পারভেজ রেজা এবং ক্যামেরাম্যান আবদুর রহিম, এনটিভির বিশেষ প্রতিনিধি দিদার চৌধুরী, বাংলা নিউজের আউটপুট এডিটর জাকারিয়া মন্ডল, দৈনিক জনকন্ঠের কূটনৈতিক রিপোর্টার তৌহিদুর রহমান, চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের নিজস্ব সংবাদদাতা জুনায়েদ শাহরিয়ার, বাংলা ভিশনের প্রযোজক জিয়াউল হাসান, চ্যানেল এস-এর চিফ রিপোর্টার মঈন উদ্দিন মঞ্জু সহ আরো অনেকে।

শনিবার সকালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য শুক্রবার বিকেলে লন্ডন থেকে কুয়ালালামপুর এসে পৌঁছাবেন বিবিসি বাংলা বিভাগের প্রধান সাবির মুস্তাফা। মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনার মো. শহিদুল ইসলাম ১৯ নভেম্বর সকাল ১০টায় সামিটের ২ দিনব্যাপী কর্মসূচীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। সমাপনী দিনে রবিবার বিকেলে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করবেন মালয়েশিয়া সরকারের পর্যটন ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রী মোহামেদ নাজরি আবদুল আজিজ এমপি। ব্যবসা-বানিজ্য, কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, তথ্যপ্রযুক্তি, পর্যটন, হিউম্যান রিসোর্স, স্কিল ডেভেলপমেন্ট, নিরাপদ অভিবাসন সহ বাংলাদেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বহুবিধ ইস্যুতে চার চারটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে, যাতে কীনোট এবং প্যানেল স্পিকার হিসেবে কথা বলবেন মেধাবী বাংলাদেশীরা। থাকছে কুয়ালালামপুর ডিক্লারেশন।