মেইন ম্যেনু

কোঁকড়া চুল সোজা করুন সহজে !

chul

চুল নিয়ে খুশি থাকতে পারেন না অনেকেই। আর তাই কোঁকড়া চুল সোজা করার জন্য বেছে নেন আয়রনের হিট অথবা বাজারের বিভিন্ন কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী। এতে কিন্তু উপকারের থেকে ক্ষতিই হয় বেশি। তাই সোজা চুল পেতে চাইলে ব্যবহার করতে হবে প্রাকৃতিক উপাদান। কীভাবে? চলুন জেনে…
নিই-

আমরা সবাই জানি চুলের স্বাস্থ্যের জন্য নারিকেল তেল কতটা ভালো। নারিকেলের দুধে আছে তেলের থেকেও অনেক বেশি পুষ্টি। এটা চুলের জন্য খুবই ভালো কন্ডিশনার স্পেশালি যাদের চুল অনেক লম্বা, রুক্ষ-শুষ্ক আর ফ্রিজি। এক কাপ ফ্রেশ নারিকেলের দুধ নিন। নারিকেল পিষে বা ব্লেন্ডারে দিয়ে পিষে তারপর পেষা নারিকেল ছাঁকুনি দিয়ে ছেঁকে নিলেই পেয়ে যাবেন একদম তাজা নারিকেলের দুধ। নারিকেলের ঘন দুধ পুরো চুলে লাগান। ২-৩ ঘণ্টা রেখে দিন। মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নারিকেলের দুধের সাথে হালকা একটু লেবুর রস মিশিয়ে রেখে দিলে পেয়ে যাবেন নারিকেলের ক্রিম। এই ক্রিম শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার হিসেবে ব্যবহার করলে খুবই ভালো ফল পাবেন।

কলা আর অলিভ অয়েল দুটোই চুলে আর্দ্রতা আর পুষ্টি যোগায়। নিয়মিত ব্যবহারে এই মাস্ক কোঁকড়া চুলের কার্ল হালকা করারও ক্ষমতা রাখে। দুটো পাকা কলা ও দুই চা চামচ অলিভ অয়েল নিন। একটা বাটিতে কলা আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে স্মুথ পেস্ট তৈরি করুন। পুরো চুলে মিশ্রণটি লাগিয়ে একটা শাওয়ার ক্যাপ পরে ফেলুন। ২-৩ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করুন।