মেইন ম্যেনু

কোন বয়সে কী খাবেন?

174842eggs

বিভিন্ন বয়সে আমাদের বিভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়া উচিত। এক্ষেত্রে জেনে রাখা উচিত, অল্প বয়সে আমাদের যে খাবারগুলো খাওয়া যায় তা বেশি বয়সে খুব একটা খাওয়া যায় না। এক্ষেত্রে কয়েকটি উদাহরণ দেওয়া হলো এ লেখায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হাফিংটন পোস্ট।

২০-এর দশকে
আপনার বয়স যখন ২০ থেকে ২০-এর মাঝে তখন টগবগ করছে যৌবন। এ সময় খাবার খেতে হবে কিছুটা সতর্ক হয়ে। এক্ষেত্রে কয়েকটি খাবার হলো-

দই
হাড় গঠনের জন্য দই অত্যন্ত ভালো। এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, যা হাড়ের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

ডিম
ডিমে রয়েছে নানা ধরনের ভিটামিন ও পুষ্টি উপাদান। আর এগুলো এ বয়সের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

৪০ বছর পার হলে
এ বয়সে খেতে হবে বেশি করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট খাবার। এছাড়া শরীর যেন বুড়িয়ে না যায় সেজন্যও বাড়তি যত্ন নিতে হবে। এ বয়সে খাবেন বেশি করে ফলমূল, সবজি, মাছ ও চর্বিহীন প্রোটিন। এছাড়া লবণ, চিনি, ফ্যাট ও অ্যালকোহল বাদ দেবেন। এছাড়া রয়েছে ডাল ও মুরগির মাংস।

ডাল
ডালে রয়েছে প্রচুর পুষ্টি উপাদান, যা এ বয়সের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। বহু মানুষই এ বয়সে বিপাক ক্রিয়ার সমস্যায় ভোগেন। আর এ সমস্যা সমাধান করতে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে ডাল। ডাল দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণেও কার্যকর। কারণ এতে রয়েছে প্রচুর আঁশও।

মুরগির মাংস
এ খাবারটি লাল মাংসের তালিকায় নেই। আর মুরগির মাংস থেকে দেহের জন্য প্রয়োজনীয় প্রচুর প্রোটিন ও অন্যান্য খাদ্যপ্রাণ পাওয়া সম্ভব। তাই এ বয়সে খাদ্যতালিকায় রাখুন মুরগির মাংস।

আখরোট বাদাম
আখরোট বাদামে রয়েছে প্রচুর ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড। আর এটি দেহের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। এছাড়া এটি মানসিক সমস্যা বা বিষণ্ণতাও প্রতিরোধ করে।