মেইন ম্যেনু

ক্যান্সার শনাক্তে এবার স্মার্টফোন

স্মার্টফোন ছাড়া স্মার্ট জীবন কল্পনা করা যায় না। দৈনন্দিন নানা কাজ সহজেই করতে স্মার্টফোনের বিকল্প নেই। কেনাকাটা, টাকার লেনদেন কী যোগাযোগ স্থাপন- এর ব্যবহার সর্বত্র। এমনকি স্বাস্থ্য সেবায়ও এই স্মার্টফোন ব্যবহৃত হচ্ছে। সেইসঙ্গে এবার যোগ হচ্ছে রোগ নির্ণয়েও। এবার ক্যান্সার শনাক্তও করা যাবে এই স্মার্টফোন দিয়ে।

ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক এমনটাই দাবি করেছেন।

তারা বলছেন, স্মার্টফোনের জন্য সহজে বহনযোগ্য একটি ল্যাবরেটরি তৈরি করেছেন, যা সহজেই ক্যান্সার চিহ্নিত করতে পারবে। বিভিন্ন নমুনা পরীক্ষা করে প্রথম সারির ল্যাবের মতোই ক্যান্সার বায়োমার্কারকে শনাক্ত করতে পারে ওই ল্যাবরেটরি।

ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল অ্যান্ড মেটেরিয়ালস ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুলের সহকারী অধ্যাপক জানান, যেসব হাসপাতাল বা ক্লিনিকে ‘অন সাইট ল্যাব’ নেই সেসব হাসপাতাল বা ক্লিনিক ছাড়াও প্রত্যন্ত এলাকায় তাদের তৈরি স্মার্টফোন ল্যাবরেটরি খুবই কাজে আসবে। আটটি আলাদা নমুনা একসঙ্গে পরীক্ষা করতে পারে এ প্রযুক্তি, যা সহজেই বলে দেয় ক্যান্সারের হদিস।

গবেষকদের দাবি, শিগগির তারা এমন এক পদ্ধতি তৈরি করতে চলেছেন, যা যে কোনো স্মার্টফোনে ব্যবহার করা যাবে।

এ দিয়ে মানুষের ইন্টারলিউকিন-৬ (আইএল-৬) শনাক্ত করা যাবে। আর এ আইএল-৬ হলো মূলত ফুসফুস, প্রস্টেট, লিভার, স্তন ও এপিথেলিয়াম ক্যান্সারের বায়োমার্কার।