মেইন ম্যেনু

ক্রসফায়ারে হত্যা : তিন পুলিশের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

police-220161113153929

কুষ্টিয়ায় যুবক দাউদ হোসেনকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে সন্ত্রাসী বানিয়ে ক্রসফায়ারে হত্যার অভিযোগে এক মামলায় ওসিসহ তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

রোববার কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

পরোয়ানা জারিকৃত তিন পুলিশ সদস্য হচ্ছেন কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন, এসআই রবিউল ইসলাম ও কনস্টেবল ফারুক হোসেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৭ সালের ১৯ জানুয়ারি দাউদ হোসেনকে তার নামে মামলা আছে বলে নিজ বাড়ি থেকে এই তিন পুলিশ সদস্য ধরে নিয়ে আসেন।

ক্রসফায়ারে হত্যা করার ভয় দেখিয়ে তার কাছে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করেন। দাউদের পরিবার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে পরদিন ২০ জানুয়ারি কৃষক দাউদ হোসেনকে সন্ত্রাসী বানিয়ে ক্রসফায়ারে হত্যা করে পুলিশ। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা পুলিশ আদালতে এফআরটি দাখিল করে।

এরপর নিহত দাউদ হোসেনের স্ত্রী রোমেছা খাতুন বাদী হয়ে পুলিশের দেয়া এফআরটির বিরুদ্ধে নারাজি পিটিশন দাখিল করেন। পরবর্তীতে নিহত দাউদ হোসেনের স্ত্রী রোমেছা খাতুন আদালতে ওসিসহ তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

জুডিশিয়ালসহ তিন দফা তদন্ত শেষে সিআর মামলা হিসেবে আদালতে বিচার কার্যক্রম শুরু হলে আদালত রোববার ওসিসহ তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।