মেইন ম্যেনু

গণপরিবহনে রূপচর্চা করেন কুৎসিত নারীরা!

বহু নারীকেই গণপরিবহনে বসে রূপচর্চা করতে দেখা যায়। তাদের অনেকেই বাসে বা ট্রেনে বসে মুখে পাউডার লাগান, কেউবা লিপস্টিক বা ক্রিম লাগান। আর এ নারীদের কুৎসিত বলেই বর্ণনা করা হয়েছে নতুন এক জাপানি ভিডিওতে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট।

জাপানি একটি রেলওয়ে সংস্থা নারীদের ট্রেনে বসে রূপচর্চা করাকে নিরুৎসাহিত করেছে। আর এ নিরুৎসাহিত করতে গিয়েই একটি ভিডিও তৈরি করেছে তারা। এতে ট্রেনের অন্য যাত্রীদের সম্মান করে ট্রেনে বসে রূপচর্চা করতে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে।

টোকিও কর্পোরেশনের নতুন ভিডিওটিতে নাচ ও গানের মাধ্যমে বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। ভিডিওতে প্রতিষ্ঠানটি বাড়িতেই রূপচর্চার কাজটি শেষ করে ট্রেনে চড়ার অনুরোধ করেছে।

তবে ভিডিওটি ছাড়ার পর তার সমালোচনাও হচ্ছে প্রচুর। আর সমালোচকদের সংখ্যাই বেশি দেখা যাচ্ছে। কিন্তু কেন এ সমালোচনা?
সাবওয়ে ট্রেনে ভিডিওটি শুরু হয় এক নারীকে সামনে রেখে। তিনি বলেন, ‘শহরের সব নারীরাই সুন্দরী। তবে তারা কখনো কখনো কুৎসিত হয়ে ওঠে।’

তিনি এরপর নাচ ও গানের মাধ্যমে বলেন, ‘আপনারা কেন বাড়িতেই রূপচর্চা করেন না?’

তবে এ বিষয়টি জাপানি নারীরা পছন্দ করছেন না। আর এ কারণে বিষয়টির যথেষ্ট সমালোচনা হচ্ছে। তারা বলছেন, ট্রেনে রূপচর্চা কারো ক্ষতি করছে না। বরং জাপানি পুরুষদের বদভ্যাসগুলোই দূর করা উচিত। এক্ষেত্রে ট্রেনে বসে পর্ন দেখা, অন্যের দেহে স্পর্শ করা, ব্যাকপ্যাক দিয়ে ধাক্কাধাক্কি করা ইত্যাদি বিষয়ে মনোযোগী হওয়া প্রয়োজন আগে।