মেইন ম্যেনু

গাজীপুরের মেয়র মান্নানের মুক্তিতে বাধা নেই

mannan20161124120010

দুর্নীতি মামলায় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের (সাময়িক বরখাস্ত) মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ মান্নানকে দেয়া হাইকোর্টের জামিন স্থগিত চেয়ে দুদক যে আবেদন করেছিল- তা খারিজ করেছেন আপিল বিভাগ।

ফলে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রইলো মান্নানের।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে মান্নানের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। অপরদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। পরে মান্নানের আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, মেয়র মান্নান তার বিরুদ্ধে থাকা অন্যসব মামলায় জামিনে আছেন। আজ এই মামলায় আপিল বিভাগ জামিন বহাল রাখায় তার মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই।

এর আগে গত ১৭ আগস্ট বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি জেবিএম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ মান্নানকে তিন মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন। একইসঙ্গে তাকে কেন স্থায়ী জামিন দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে চার সপ্তাহের রুলও জারি করেন আদালত।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ত্রাণ ও দরিদ্র তহবিলে এক কোটি তিন লাখ আট হাজার ১৩২ টাকা আয় হয়। এর মধ্যে ৯০ লাখ ৪৭ হাজার ৮৪৬ হজার টাকা ব্যয় করা হয়। ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে যথাযথভাবে এই ব্যয় করা হয়নি- এমন অভিযোগে গত ১৩ জুন দুদকের উপ-পরিচালক সামছুল আলম জয়দেবপুর থানায় এ মামলা করেন। কারাগারে থাকা অবস্থায় ওই মামলায় ১৯ জুন মেয়র মান্নানকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

২০১৫ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি মেয়র মান্নান প্রথম দফায় গ্রেফতার হন। পরে তাকে ২২টি মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। সেসব মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন লাভের পর চলতি বছর দুই মার্চ তিনি জামিনে মুক্তি পান। মুক্তি পাওয়ার পর চলতি বছর ১৫ এপ্রিল তাকে আবার গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সেই থেকে তিনি কারাগারেই আছেন।