মেইন ম্যেনু

চা-‌ওয়ালার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল যুবতী ‌সবজিওয়ালি

1478010288

শুধু মাত্র একটা পোস্ট। বেশ রাতারাতি সুপারডুপার হিট। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কল্যানে পাকিস্তানের চা-‌ওয়ালার পরে এবার হিট নেপালের ‘‌সবজিওয়ালি’‌।

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রাতারাতি খ্যাতির শিখরে নেপালের সবজিবিক্রেতা তরুণী!‌ রূপচন্দা মহাজন নামে এক চিত্রগ্রাহক নেপালে গিয়ে এই সবজি বিক্রেতা তরুণীর ছবি তোলেন। সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেই ভাইরাল হয়ে যায় তরুণীর ছবি।

দু’‌টি ছবিতে দেখা যাচ্ছে সবুজ পোশাক পরে বাজারের মোবাইল ফোনে কথা বলছেন তরুণী। অন্য ছবিতে মাথায় তরকারির ঝুড়ি নিয়ে সেতুর ওপর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন ওই তরুণী। কয়েকদিন আগেই এভাবেই রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে গিয়েছিলেন পাকিস্তানের চা বিক্রেতা আর্শাদ খান।

এবার অধুনা ভার্চুয়াল দুনিয়ায় উথাল পাতাল ঢেউ তুলছেন এক নেপালি সবজি বিক্রেতা। রূপচন্দ্রা মহাজন নামে জৈনক ফটোগ্রাফার সম্প্রতি নেপালে গিয়ে এই সবজি বিক্রেতা যুবতীর ছবি তোলেন। পরনে সবুজ কুর্তা, কালো চুড়ি-পা। সবজির ঝুড়ি কাঁধে নিয়ে ব্রিজ পার করছে সে। পরমা সুন্দরী না হলেও নিদেন পক্ষে সুশ্রী তো বটেই। ছিপছিপে গড়ন। মোবাইল ফোন হাতে তার ছবিতে একটা স্মার্টনেসও ধরা পড়ে।

ছবি ভাইরাল হতেই মডেলিংয়ের চুক্তিতে সইও করে ফেলেছেন তিনি। আর্শাদের সঙ্গে কাজ করার জন্য অপেক্ষায় আরও কয়েকটি সংস্থা। সেটা সময়ই বলবে। তবে তার আগে অপেক্ষা তরুণীর পরিচয়, ঠিকানা খুঁজে বের করার। কারণ, টুইটারে শুধু ওই তরুণীর ছবিই পোস্ট করেছেন রূপচন্দা। নাম ঠিকানা তো জানাননি!‌