মেইন ম্যেনু

চিরস্থায়ী জাহান্নামের অধিবাসী যারা

jahannam-top20161020170233

আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘এটা কিছুতেই উচিত নয়, নিশ্চয় পাপাচারীদের আমলনামা সিজ্জীনে আছে। হাদিসে এসেছে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘আর যখন কাফেরের জান (রূহ) কবজ করা হবে এবং তা নিয়ে জমিনের দরজা পর্যন্ত যখন পৌঁছানো হবে; তখন জমিনের পাহারাদার বলবেন, এর চেয়ে পঁচা দুর্গন্ধ আর কখনো আমরা পাইনি। অতঃপর উহা নিম্নতর জমিনে (জাহান্নামের) পৌঁছে দেয়া হবে। (মুসতাদরেকে হাকেম, ইবনে হিব্বান) যারা জাহান্নামের চিরস্থায়ী বাসিন্দা হবে আল্লাহ তাআলা তাদের পরিচয় কুরআন এবং হাদিসে তুলে ধরেছেন। কাফের, মুশরেক এবং আকিদায় কপট মুনাফিকরাই চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে।

আর তাওহীদপন্থী পাপীরা অর্থাৎ আল্লাহ তাআলার ওপর বিশ্বাস স্থাপনকারী গোনাহগার ব্যক্তিরা আল্লাহ তাআলার ইচ্ছাধীন থাকবে। তিনি চাইলে তাদেরকে মাফ করে দিবেন অথবা তাদের পাপের সমান শাস্তি দেয়ার পর জান্নাতে প্রবেশ করাবেন।

জাহান্নামের অধিবাসীদের পরিচয় দিয়ে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘আল্লাহ তাআলা ওয়াদা করেছেন মুনাফিক নারী-পুরুষ এবং কাফেরদের জন্যে দোযখের আগুনের; তাতে পড়ে থাকবে সর্বদা। সেটাই তাদের জন্য যথেষ্ট। আর আল্লাহ তাদের প্রতি অভিসম্পাত করেছেন এবং তাদের জন্য রয়েছে চিরস্থায়ী আজাব।’ (সুরা তাওবা : আয়াত ৬৮)

অন্য আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘নি:সন্দেহে আল্লাহ তাআলা তাকে ক্ষমা করবেন না, যে আল্লাহর সাথে শরিক করে। তিনি ক্ষমা করবেন এর চেয়ে নিম্ন পর্যায়ের পাপ, যার জন্য তিনি ইচ্ছা করেন।’ (সুরা নিসা : আয়াত ৪৮)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তাওহিদ পরিপন্থী আক্বিদা ও মুনাফেকিমুক্ত জীবন-যাপন করার তাওফিক দান করুন। আল্লাহ তাআলার প্রতি অবিচল আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করে চিরস্থায়ী জান্নাত লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।