মেইন ম্যেনু

জনমত জরিপে এবার হিলারিকে টপকে গেলেন ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর বেশি সময় নেই। ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন এবং রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে এখন বেশ উত্তপ্ত নির্বাচনী প্রচারণা শিবির। কে কাকে ছাড়িয়ে গেছে বা কে এগিয়ে আছে- এটাই এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এতদিন জনপ্রিয়তায় এগিয়ে ছিলেন ডেমোক্রেট প্রার্থী এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন।

কিন্তু গতকালের এক নতুন জরিপে দেখা গেছে, হিলারিকে টপকে এক পয়েন্টে এগিয়ে গেছেন ধনকুবের ব্যবসায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবিসি’র জরিপে ১ পয়েন্টে এগিয়ে যাওয়ায় প্রথমবারের মতো হিলারিকে পেছনে ফেলতে সক্ষম হলেন নানা বিতর্কের জন্ম দেয়া ট্রাম্প।

গত ২৩ অক্টোবরের এক জরিপ অনুযায়ী, হিলারির চেয়ে ১২ শতাংশ ভোটে পিছিয়ে ছিলেন ট্রাম্প। ওই জরিপের পরে বলা হয়েছিল, ট্রাম্পের পক্ষে এই ব্যবধান টপকানো আদপেই সম্ভব নয়। কিন্তু সেই না’কেই হ্যাঁ করে দেখিয়েছেন ট্রাম্পের সমর্থকরা।

অবশ্য হিলারির প্রচারণা শিবিরের দাবি, ট্রাম্প এগিয়ে নন। আসলে এর পেছনে দেশের কিছু সংবাদমাধ্যমের রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে। তাছাড়া তাদের অভিযোগের তীর এফবিআই পরিচালক জেমস কোমির দিকেও রয়েছে। কোমিই হিলারির ই-মেল নিয়ে নতুন করে তদন্তে নেমে তার জনপ্রিয়তায় ধস নামিয়েছেন বলে দাবি করেছেন হিলারি সমর্থকরা।

এদিকে, হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র আর্নেস্ট জস জানিয়েছেন, নতুন করে হিলারির ই-মেইল তদন্ত নির্বাচনে কোনো প্রভাব ফেলবে না। তবে খোদ এফবিআই কর্মকর্তারাই এ বিষয়টি নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। কারণ নতুন এই তদন্তের পরেই ট্রাম্পের চেয়ে হিলারির জনপ্রিয়তা কমে গেছে।

নির্বাচনের আর মাত্র অল্প কয়েক দিন বাকি। এর মধ্যে ট্রাম্পের হঠাৎ এমন এগিয়ে যাওয়ায় নির্বাচন অন্যদিকে মোড় নিচ্ছে। আর এ থেকে সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করছেন ট্রাম্প।