মেইন ম্যেনু

জানেন, কেন ‘পোস্টমর্টেম’-কে বাংলায় ‘ময়নাতদন্ত’ বলা হয়?

1477455519

মিষ্টি একটা পাখি। এই বাংলার একেবারে ঘরের পাখি সে। কিন্তু খুনখারাপির মতো ব্যাপারের সঙ্গে কেন তার নাম জড়িয়ে গেল? কীভাবে? জেনে নিন।

কুচকুচে কালো রঙের পাখি। চোখের দু’পাশে হলুদের আলপনা, কমলা রঙের ঠোঁট। সৌন্দর্য নিয়ে তর্ক করা বোকামো।

ঘটনা হল, ময়না পাখি সব মিলিয়ে মোট ১৩ রকমভাবে ডাকতে পারে। রীতিমতো অভিজ্ঞ কান ছাড়া সেই ডাক কেউ বুঝবেন না। রাতের অন্ধকারে বা গভীর জঙ্গলে বা গাছের পাতার আড়ালে এরা যখন নিজেদের লুকিয়ে রাখে, তখন এদের খুঁজে বের করার একটিই মাত্র সূত্র থাকে, ডাক। ডাক শুনেই অভিজ্ঞ ব্যক্তি বুঝতে পারেন, ময়না কোথায় রয়েছে। ফাঁকি দেওয়ার জন্য ময়না গলা পাল্টে ডাকলেও অভিজ্ঞ ব্যক্তি ঠিক খুঁজে নেন।

ঠিক একইভাবে পোস্টমর্টেমেও অন্ধকারে থাকা কোনও রহস্যকে সামান্য সূত্র দিয়েই বের করে আনেন অভিজ্ঞ তদন্তকারী। সেই থেকেই পোস্টমর্টেমের বাংলা ময়নাতদন্ত।-এবেলা