মেইন ম্যেনু

জান্নাত যাদের আহ্বান করবে

জান্নাত বা বেহেশত আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে মুমিন বান্দার জন্য পরকালীন জীবনের চিরস্থায়ী শান্তির নীড়। যারা দুনিয়াতে কুরআন-সুন্নাহ মোতাবেক আমল করবে; সেই আমল অনুযায়ী প্রাপ্ত জান্নাতের দরজাসমূহ তাদেরকে আহ্বান করবে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদিসের মাধ্যমে তা সুস্পষ্টভাবে বর্ণনা করছেন। মুমিন বান্দাকে জান্নাতের দরজাসমূহের আহ্বানের হাদিসটি তুলে ধরা হলো-

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি আল্লাহর রাস্তায় দ্বিগুণ খরচ করবে তাকে জান্নাতের দরজা থেকে আহ্বান করা হবে- হে আল্লাহর বান্দা! ইহা কল্যাণকর।

যে ব্যক্তি পূর্ণাঙ্গ মুসল্লি, তাকে নামাজের দরজা থেকে আহ্বান করা হবে। আর যে (ব্যক্তি আল্লাহর রাস্তায় সংগ্রামকারী) মুজাহিদ, তাকে জিহাদের দরজা থেকে ডাকা হবে। আর যে (ব্যক্তি) রোজাদার তাকে রাইয়ান (নামক জান্নাতের) দরজা থেকে ডাকা হবে। আর যে (ব্যক্তি) দানবীর তাকে সদকার দরজা থেকে আহ্বান করা হবে।’

(এ ঘোষণা শুনে) হজরত আবু বকর রাদিয়াল্লাহু আনহু বললেন, ‘আমার বাবা-মা আপনার প্রতি উৎসর্গ হোক, হে আল্লাহর নবি! প্রত্যেককেই তার (জন্য নির্ধারিত) দরজা থেকে আহ্বান করা হবে। কিন্তু এমন কোনো ব্যক্তি আছে কি? যাকে সকল দরজা থেকে ডাকা হবে? তিনি (রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, ‘হ্যাঁ’, আর আমি আশাবাদি যে, তুমি তাদের অন্তর্ভুক্ত। (বুখারি ও মুসলিম)

পরিশেষে…
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে শুধুমাত্র জান্নাতের নির্ধারিত দরজা থেকে আহ্বান নয়, বরং সকল দরজা থেকে আহ্বান করার জন্য তাঁর পূর্ণাঙ্গ বিধান পালনে একনিষ্ঠ হওয়ার তাওফিক দান করুন। কুরআন সুন্নাহ মোতাবেক জীবন-যাপন করার তাওফিক দান করুন। চিরস্থায়ী শান্তির নীড় জান্নাত ও তাঁর দিদার নসিব করুন। আমিন।