মেইন ম্যেনু

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ইঙ্গিত দিলেন ওবামা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছে, ক্ষমতা ছেড়ে দেয়ার পর যদি দেখেন নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার মূল চেতনাবোধের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াচ্ছেন, তাহলে তিনি এর বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রচলিত রীতি অনুসারে, প্রাক্তন প্রেসিডেন্টরা সাধারণত ক্ষমতা হস্তান্তরের পর রাজনৈতিক বাদানুবাদ এড়িয়ে চলেন এবং উত্তরসূরিদের সম্পর্কে সমালোচনা থেকে বিরত থাকেন। এই প্রথা ভাঙ্গারই ইঙ্গিত দিলেন ওবামা।

পেরুর লিমায় অ্যাপেক সম্মেলনের সমাপ্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওবামা জানান, তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তার রূপকল্পের নকশা তৈরির জন্য সময় দিতে চান এবং এ কাজে তাকে সহায়তাও করতে চান। তবে দেশের একজন নাগরিক হিসেবে তিনি কিছু কিছু বিষয়ে প্রতিবাদও করতে পারেন।

প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেন, “আমি চাই প্রেসিডেন্ট অফিসের প্রতি সম্মান ধরে রাখতে এবং নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে একটা সুযোগ দিতে চাই যেন তিনি তার প্ল্যাটফর্ম ও যুক্তিগুলো কারও হস্তক্ষেপ ছাড়াই সবার কাছে তুলে ধরতে পারেন।

তবে যদি কোনো ইস্যু আমাদের মূল্যবোধ ও আদর্শের দিকে প্রশ্ন তোলে, এবং আমার মনে হয় সেই আদর্শকে রক্ষা করা আমার জন্য দরকার, তাহলে আমি সেটা যাচাই করে দেখব।”

বারাক ওবামা তার আলোচনায় নিজের কথার পেছনে যুক্তি হিসেবে নিজেকে একজন আমেরিকান নাগরিক হিসেবে ব্যাখ্যা করেন, যিনি নিজের দেশ সম্পর্কে গভীরভাবে সচেতন।