মেইন ম্যেনু

ডিভোর্স নিয়ে আর ঝামেলা চান না জোলি

photo-1477459907

ব্র্যাড পিটের সঙ্গে ডিভোর্স নিয়ে আর কঠোর ভূমিকায় যাবেন না বলেই নাকি ভাবছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। ডিভোর্স প্রক্রিয়ায় আদালতে নিজে কেমন ভূমিকায় থাকবেন এবং নিজেকে কীভাবে সামলে রাখবেন—এ ব্যাপারে সহায়তা পাবেন সন্তানদের থেকে। সন্তানদের কথা ভেবেই পিটের বিরুদ্ধে খুব বেশি কঠিন হবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

ছয় সন্তানই এখন সবকিছুর আগে বিবেচ্য বলে জানিয়েছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। তাঁর ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানিয়েছে, জনসাধারণের কাছে এরই মধ্যে পিটের সঙ্গে ডিভোর্স নিয়ে ভিলেন বনে গেছেন জোলি। আদালতে এ ডিভোর্সের মামলায় পিটের ওপর খুব বেশি চাপ দিতে চাইছেন না জোলি।

এই সূত্র আরো জানায়, জোলি পিটের মুখোশ উন্মোচন করতে চেয়েছিলেন। ব্র্যাড পিট ভক্তদের দেখাতে চেয়েছিলেন যে তিনি আসলে যতটা মিষ্টি আর নির্দোষের ভান ধরে থাকেন, ততটা তিনি নন। কিন্তু ঘনিষ্ঠজন আর পরিবারের কাছ থেকে এ রকম পিছুটান আশা করেননি জোলি। আর এ কারণে ডিভোর্সের বাকি প্রক্রিয়ায় শান্ত আর ভদ্র হয়ে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জোলি।

সেপ্টেম্বরের ১৯ তারিখে আদালতে ৫২ বছর বয়সী ব্র্যাড পিটের কাছ থেকে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন করেন জোলি, যার পাশাপাশি ছয় সন্তানকে তাঁর নিজের কাছে রাখার আবেদনও জানান। দীর্ঘ ১২ বছরের প্রেম আর দুই বছরের সংসারজীবনের ইতি ঘটিয়ে অ্যাঞ্জেলিনার আচমকা ডিভোর্সের সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিল পুরো দুনিয়া। যদিও নিজের অবস্থানের পেছনে পরিষ্কার কারণ ব্যাখ্যা করেছিলেন এই তারকা। পিতার ভূমিকায় ব্র্যাড পিটের ব্যর্থতা রয়েছে বলে তিনি ব্যাখ্যা দেন। ভক্ত-দর্শকদের মতোই জোলির এই কথায় অবাক হয়েছিলেন স্বয়ং ব্র্যাডও। কারণ, এর আগে নাকি এসব নিয়ে তাঁকে কখনো কিছুই বলেননি জোলি!