মেইন ম্যেনু

ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্ম পাকিস্তানে!

36420394_303

ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্পর্কে আপনি কতটুকু জানেন? যতই জানুন আপনার জানায় হয়ত গলদ আছে৷ অন্তত ট্রাম্পের জন্ম যে পাকিস্তানে এটা নিশ্চয়ই আপনি জানেন না৷ খোদ পাকিস্তানেই উঠেছে এমন দাবি!

হ্যাঁ, পাকিস্তানের অনেক মানুষই এমন দাবি করছেন৷ তাঁরা বলছেন, হিলারি ক্লিন্টনকে ভোটে প্রায় উড়িয়ে দিয়ে যিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হতে চলেছেন, সেই ডোনাল্ড জন ট্রাম্প আসলে পাকিস্তানেরই ‘কৃতী’ সন্তান৷ এমন দাবি তুলে ধরা একটি ভিডিও-সংবাদ ইউটিউবে এখন ভাইরাল৷ গত সাত দিনে প্রায় পাঁচ লক্ষ বার দেখা হয়েছে ভিডিওটি৷

ভিডিওটিতে এক সংবাদ পাঠিকা সচিত্র প্রতিবেদনের মাধ্যমেই তুলে ধরেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের জীবনের অজানা এক কাহিনি৷ সেই কাহিনি অনুযায়ী, ট্রাম্পের জন্ম যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে নয়, পাকিস্তানের ছোট্ট এক শহরে৷ পাকিস্তানের এক মাদ্রাসায় লেখাপড়া করেছেন তিনি৷ এক দুর্ঘটনায় শৈশবেই তিনি এতিম হয়ে যান৷ এতিম শিশুটিকে দত্তক নেন এক মার্কিনি৷ তাঁর সঙ্গেই এতিম শিশুটি পাকিস্তান ছেড়ে চলে যায় যুক্তরাষ্ট্রে৷ বড় হয়ে, বড়লোক হয়ে, নির্বাচনে দাঁড়িয়ে নির্বাচিত হয়ে এখন যে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হতে চলেছেন, তা তো সবাই জানেন৷ কিন্তু ছোট বেলায় তাঁর নাম কি ছিল, জানেন? ওপরের ভিডিওতে উর্দুতে প্রচারিত সংবাদ খবর অনুযায়ী, তখন তাঁর নাম ছিল দাউদ ইব্রাহিম৷

অবাক হলেন? কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো, থুক্কু, দাউদ ইব্রাহিমের মতো মানুষ যে পাকিস্তানি হতে পারেন এমনটি কিন্তু পাকিস্তানের অনেক মানুষই মনে করছেন৷ মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের জন্ম ভারতের মহারাষ্ট্রে হলেও বসবাসের জন্য বিশ্বে এত দেশ থাকতে একটি দেশকেই পছন্দ করেছেন৷ দেশটির নাম পাকিস্তান৷ হ্যাঁ, সেখানেই নিরাপদে বসবাস করেন তিনি৷

পাকিস্তানে অনেকেই মনে করেন, সন্ত্রাসী কার্যকলাপের জন্য কুখ্যাত দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের খুব মিল৷ ট্রাম্প কাজে না হলেও কথায় যে অনেক বড় ‘সন্ত্রাসী’ তা তাঁর নির্বাচনি ভাষণেই প্রমাণিত হয়েছে বলে মনে করেন তাঁরা৷ তাই তাঁরা বলছেন, এমন সন্ত্রাসীর প্রকৃত ঠিকানা পাকিস্তান হওয়াই স্বাভাবিক৷ তাঁরা আরো বলছেন, কথায় এবং আচরণে ট্রাম্পের যে ভাবমূর্তি তৈরি হয়েছে তাতে তাঁর নামটাও হওয়া উচিত দাউদ ইব্রাহিম!