মেইন ম্যেনু

‘তথ্যপ্রযুক্তি হবে বৈদেশিক মুদ্রার অন্যতম খাত’

আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে অন্যতম খাত হবে আইসিটি খাত। এ খাত থেকে আগামী ২০২১ সালের মধ্যে ৫ বিলিয়ন ডলার আয় করা সম্ভব হবে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন তথ্য ও প্রযুক্তিমন্ত্রী জোনায়েদ আহমেদ পলক।

শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি ভবনে ‘ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন আইটি-২০২১’ শীর্ষক সম্মেলন উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভা ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। মতবিনিময় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন আইসিটি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হারুন অর রশিদ ও উইস্টার চেয়ারম্যান ইভানুচু।

অনুষ্ঠানে তথ্য ও প্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সরকার আইসিটি খাতকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে আসছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আইটি খাতকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয় এ খাতে নানা ধরনের সহযোগিতা দিচ্ছেন। এর ফলশ্রুতিতে আমরা জোর করে বলতে পারি ২০২১ সালের মধ্যে আইসিটি খাত থেকে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করব।’

জুনায়েদ হোসেন পলক বলেন, ‘আইটি খাতে যে উন্নয়ন হচ্ছে তা আজ দৃশ্যমান। এ খাতের উন্নয়নের মাধ্যমে আমাদের মানবসম্পদ উন্নয়নে আরও এগিয়ে যাব। এর মধ্যে ই-কমার্স চালু হয়েছে। এটার আমরা আরও উন্নয়ন করছি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আসন্ন সম্মেলন সাফল্যম-িত করতে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। এ সম্মেলনের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক ওয়ার্ল্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি এন্ড সার্ভিসেস এলায়েন্স (উইস্টা)।

ইভানুচু বলেন, ‘আইসিটি খাত বাংলাদেশে এখন ভালো সময় পার করছে। কারণ, আমি দেখতে পাচ্ছি, এটা বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় খাত। ভিশন-২০২১ সালকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এগিয়ে যাচ্ছেন। পরবর্তী ৪-৫ বছরের মধ্যে আইসিটি খাত বাংলাদেশের বড় আয়ের উৎস হবে। আমাদের সংস্থার পক্ষ থেকে এ বিষয়ে সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে।’