মেইন ম্যেনু

তবে কি সন্তান নিয়েই দেশে ফিরবেন অপু? প্রশ্ন একটাই, কে এই সন্তানের পিতা?

apu

সেলুলয়েডের রঙিন দুনিয়া নিয়ে একটু বেশিই আলোচনা-সমালোচনা হয়। কৌতূহলের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন রুপালি পর্দার তারকারা। তেমনই ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। কিন্তু প্রায় আট মাসেরও বেশি সময় ধরে তিনি নেই ইন্ড্রাস্ট্রিতে! যদিও এর আগে একবার অপু নিখোঁজ হয়েছিলেন। তখন এতোটা জলঘোলা হয় নি। অভিনয়, ব্যক্তিগত ব্যবসা-বাণিজ্যসহ চলচ্চিত্রের কাছের মানুষ বলে যারা পরিচিত-সকলের কাছ থেকেই বর্তমানে দূরত্বে আছেন তিনি।

অপুর সঙ্গে কারও কোন ধরনের যোগাযোগ নেই বলেও কাছের স্বজনেরা দাবি করছেন। কেনো অপু’র এই আড়াল রহস্য? সেই প্রশ্নের উত্তর কিন্তু নানান রকম। সঠিক উত্তরটা কারো জানা নেই। আর এ নিয়ে ‘গুঞ্জনে’র ডালপালা দিনে দিনে প্রসারিত হচ্ছে! যার পুরোটাই জুড়ে রয়েছে ঢালিউডের কিং খান শাকিব খানের নাম! সম্প্রতি সে পালে লেগেছে নতুন হাওয়া। মা হয়েছেন অপু! এমন একটি খবর ভেসে বেড়াচ্ছে কাকরাইল পাড়ায়। বর্তমানে কলকাতায় অপু তার নবজাতক সন্তানকে নিয়ে আছেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে অপুর এক ঘনিষ্ঠজন দাবি করেছেন, ‘সন্তান বড় না হওয়া পর্যন্ত কলকাতায় থাকবেন অপু। আর শাকিব যদি মেনে নেন তাহলে সন্তান নিয়েই দেশে ফিরবেন। আর যদি না মানেন তাহলে সন্তানকে কলকাতায় রেখে দেশে ফিরবেন তিনি। অপু দেশে ফিরেই আটকে রাখা ছবিগুলোর কাজ শেষ করবেন।’

এদিকে সাম্প্রতিককালে শাকিব-অপু’র ব্যক্তিজীবন নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় নানান খবর প্রকাশিত হয়। যেখানে তাদের সহশিল্পীদের বাইরেও তাদের মধ্যে স্বামী-স্ত্রী সম্পর্ক রয়েছে বলে দাবি করা হয়। গণমাধ্যমে যে সব সূত্রের বরাত দিয়ে খবর প্রকাশিত হয়েছে, সেখানে দাবি করা হয়েছে-২০০৮ সালে গোপন বিয়ের পিঁড়িতে বসেন শাকিব-অপু। এরপর দীর্ঘসময় ধরে চলছে লোকচক্ষু থেকে আড়াল করা তাদের সংসার। গুলশানেই দু’জনের বাসা। প্রায় সময় যার যার বাসায় থাকতে হলেও দু’জনই ছিলেন দু’জনার বেশ কাছাকাছি। বিয়ের বয়স ৮ বছর পেরুলেও কখনো তারা তা স্বীকার করেননি। কারণ হিসেবে বলেছেন দাবি করেছেন ‘ফিল্ম ক্যারিয়ারের যদি কোনো ক্ষতি হয়’।

কয়েকটি গণমাধ্যমের খবর থেকে আরও জানা গেছে, ছবিতে চমক, নতুন রূপের চমক, বিয়ের চমক, সব পর্বই তো শেষ করলেন অপু। এবার তাহলে কী চমক থাকতে পারে তা তো চোখ বন্ধ করেই বলা যায়। শাকিব-অপুর ঘরে নতুন অতিথি আসছে নিশ্চয়ই। শাকিব যেহেতু এ বিষয়ে একেবারেই নীরব তাই সহজেই বোঝা যায় ‘মৌনতাই সম্মতির লক্ষণ।’ এবার ঢালিউডের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে-তবে কি সত্যিই অপু মা হয়েছেন? এ খবরে ঢাকাই ছবির বাতাসও ভারী হয়ে উঠেছে।

তবে সর্বশেষ ১৭ সেপ্টেম্বর অপুর কাছে গিয়েছিলেন শাকিব-এমন দাবি তার ঘনিষ্ঠ সূত্রের। জুন মাসে অপু পাড়ি জমান কলকাতায়। মাঝের সময়টা কখনো ঢাকা কখনো বগুড়ায় মায়ের বাড়িতে ছিলেন এই নায়িকা।

এদিকে অপু প্রসঙ্গে শাকিব খান বলেন, ‘অপু সম্পর্কে অনেকে না জেনেই মন্তব্য করছেন। তাই এসব বিষয়ে একটা সময় বিব্রত হলেও এখন আর বিষয়টিকে গুরুত্ব দিই না। এতে তার দর্শক-ভক্তদেরও কিছু আসে যায় না। তারাও বিষয়টা বুঝে গেছেন। তাই শুধু শুধু এ নিয়ে মাথা ঘামানোর কি আছে? অপু ফিরলেই সব প্রশ্নের সমাধান মিলবে। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। আর অপুর আত্মীয় পরিচয় দিয়ে গণমাধ্যমে যিনি বক্তব্য দিচ্ছেন, তিনিও তো অপুর ক্ষতি চাচ্ছেন! কেউ কারও আত্মীয় সম্পর্কে বাজে কথা বলবেন নাকি? অপু’র তো সামনে ক্যারিয়ারের অনেকটা সময় পড়ে রয়েছে। মানুষের খেয়ে দেয়ে এমনিতেই কাজ কম। ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা খারাপ। আর যেহেতু সেলুলয়েড, বিষয়টা শাকিব খানকে ঘিরেই। তাই একটু রংচটা মন্তব্য থাকবেই।’

২০০৭ সালে এফ আই মানিকের ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে জুঁটি বাঁধেন শাকিব-অপু। এরপর প্রায় ৮ বছরেরও বেশি সময় ধরে জুঁটি হিসেবে ঢালিউডের দর্শকদের মন জয় করে চলছেন। তবে বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় এ নায়িকা উধাও হওয়ার কারণে নির্মাতারা বিপাকে পড়েছেন। সেই সাথে আছেন এসব ছবির প্রযোজকেরাও। অপু বিশ্বাস অভিনীত এসব ছবির নায়ক শাকিব খান।

সূত্র :  প্রিয়.কম