মেইন ম্যেনু

তুরস্কে ১১ এমপি আটকের পর বিস্ফোরণে বহু হতাহতের আশঙ্কা

turkey20161104160701

তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের শহর দিয়ারবাকিতে ব্যাপক বিস্ফোরণে বহু হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির বিচারমন্ত্রী বলেছেন, মধ্য দিয়ারবাকিতে বিস্ফোরণে বেশ কয়েকজন নিহত ও আরো কয়েক ডজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকালের দিকের ওই বিস্ফোরণে হতাহতদের মধ্যে পুলিশ ও বেসামরিক নাগরিক রয়েছেন। দিয়ারবাকি গভর্নর অফিস বলছে, স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। কুর্দিপন্থি যোদ্ধাদের দল কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিনিধি দিয়ারবাকি থেকে বলছেন, পুলিশের প্রধান কার্যালয় লক্ষ্য করে হামলা হয়েছে। এতে পাশের অন্তত চারটি বেসামরিক ভবনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ ছাড়া বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে এ ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে আশঙ্কা করেছেন।

কুর্দিপন্থী পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) ১১ সংসদ সদস্যকে আটকের কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিকেকে যোদ্ধাদের নির্মূলে দেশটির সরকার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে সেনাবাহিনীর অভিযান জোরদার করেছে। গত বছর বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চুক্তি ভেস্তে যাওয়ার পর প্রতিনিয়ত এ অঞ্চলে হামলার ঘটনা ঘটছে।

১৯৮৪ সালে তুরস্কের কুর্দিপন্থী যোদ্ধারা হাতে অস্ত্র তুলে নেয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ১০ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। তখন থেকেই কুর্দিরা তুরস্কে স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসছে।